kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বীরভূম: শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেলার মাঠকে উন্মুক্ত রাখতে এবার গান্ধীগিরির পথে স্থানীয় মানুষজন। রবীন্দ্র নৃত্য এবং বাউল সংগীত-এর মাধ্যমে প্রতীকী বিক্ষোভ আন্দোলনকারীদের। কলকাতা হাইকোর্টের মধ্যস্থতাকারীদের সহায়তায় ইতিমধ্যেই গত সোমবার থেকে মেলার মাঠে ফেন্সিং দেওয়ার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসনকে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করার আর্জি জানানো হয়েছিল। সেইমতো ওই এলাকায় প্রচুর পুলিশ ও জলকামান এবং বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব নিরাপত্তা রক্ষী মোতায়েন করা হয়।

kolkata news

এদিনের আন্দোলনকারীরা ওই এলাকায় না গিয়ে ফায়ার ব্রিগেড অফিস সংলগ্ন এলাকায় ওই সঙ্গীত পরিবেশনের কর্মসূচি গ্রহণ করেন। পৌষ মেলার মাঠ বাঁচাও কমিটির ব্যানারে সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশনের মাধ্যমে এই প্রতীকী বিক্ষোভ কর্মসূচি হয়।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে পৌষমেলার মাঠে পাঁচিল নির্মাণের সিদ্ধান্ত ঘিরে নজিরবিহীন ঘটনা ঘটে। উত্তেজনাকর পরিস্থিতিতে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। মেলার মাঠে পাঁচিল তৈরির কাজ চলার সময় আন্দোলনকারীরা পে-লোডার নিয়ে এসে সেই নির্মাণ ভেঙে দেন। এই পাঁচিল ভাঙায় স্থানীয় তৃণমূল বিধায়কের মদত ছিল বলে অভিযোগ ওঠে। পরে পাঁচিল তোলার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে উপাচার্যের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে শামিল হন পড়ুয়াদের একাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here