ডেস্ক: গতকালই মনোনয়ন জমাকে ঘিরে অশান্তির আশঙ্কায় রাজ্যের ৭ টি জেলায় প্রশাসনকে অতিরিক্ত সতর্কতার নির্দেশ জারি করেছিল নির্বাচন কমিশন। সোমবার সকাল থেকে সেই ৭ টি জেলা থেকেই সবচেয়ে বেশী করে আসছে অশান্তির খবর। এদিকে শনিবার হাইকোর্টের নির্দেশের পরও রাজ্য জুড়ে মনোনয়ন জমাকে কেন্দ্র করে অশান্তির প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্র সিংকে ফোন করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিলেন হাইকোর্টের বিচারপতি সুব্রত তালুকদার।

এদিন সকাল থেকেই বীরভূম, বাঁকুড়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা থেকে ব্যাপক অশান্তির খবর আসে। ভাঙড়েও বিরোধীদের মনোনয়ন জমা দিয়ে বাধা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে শাসক দলের বিরুদ্ধে। এহেন বেসামাল পরিস্থিত মাঝেই হাইকোর্টের বিচারপতিকে ফোন করে অভিযোগ জানান ভাঙড়ের জমিরক্ষা কমিটির সদস্যা শর্মিষ্ঠা চৌধুরী। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতেই এদিন নির্বাচন কমিশনারকে ফোনে ধরেন বিচারপতি সুব্রত তালুকদার। এবং ফোন করে নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্র সিংকে তিনি স্পষ্ট নির্দেশ দেন তিনি যেন ফোন করে খোঁজ নেন কারা কারা মনোনয়ন জমা দিতে পারছেন না। শুধু তাই নয় যারা মনোনয়ন জমা দিতে পারছেন না তাঁরা যেন মনোনয়ন জমা দিতে পারেন সেই ব্যবস্থা করারও নির্দেশ দেন তিনি। একইসঙ্গে নির্বাচন কমিশনারকে তাঁর স্পষ্ট নির্দেশ আগামীকাল মনোনয়ন জমা দেওয়ার রিপোর্ট যেন আদালতে পেশ করেন তিনি। মনোনয়ন দাখিল না হলে আদালত অবমাননার দায় বর্তাবে নির্বাচন কমিশনের উপর।

উল্লেখ্য, শনিবার পঞ্চায়েত মামলা নিয়ে হাইকোর্ট তার রায়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেয় সোমবার থেকে ফের মনোনয়নের সুযোগ দিতে হবে বিরোধীদের। একইসঙ্গে সমস্ত দলের সঙ্গে আলোচনা করে পঞ্চায়েতের নতুন নির্ঘণ্ট প্রকাশ করবে কমিশন। আদালতের রায়ে নির্বাচন কমিশন ব্যবস্থা নিলেও সংঘর্ষ এড়াল না এদিনও। মনোনয়ন জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে ব্যাপক হিংসা, বোমাবাজী, গুলি ও বিরোধীদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনা ঘটছে রাজ্যজুড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here