ডেস্ক: বারবার জানানো সত্ত্বেও সম্প্রতি ফের যোগী রাজ্যে উন্মত্ত জনতার হাতে আক্রান্ত হয়েছেন দুই ফল ব্যবসায়ী। পুলওয়ামার জেরে এই ঘটনার পর ফের একবার কড়া ভাষায় হুঁশিয়ারি দিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। শুক্রবার লখনউয়ের এক সভায় দাঁড়িয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানালেন তিনি। শুধু তাই নয়, একই ভাষায় কড়া পদক্ষেপের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংও।

এদিন সভামঞ্চে দাঁড়িয়ে মোদী বলেন, ‘দেশের কিছু উন্মত্ত জনতা আমাদের কাশ্মীরি ভাইদের উপর হামলা চালাচ্ছে। দেশের জন্য এই মুহূর্তে ভীষণভাবে প্রয়োজন শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখা। রাজ্য সরকারদের কাছে আমার অনুরোধ এই রকম কোনও ঘটনা ঘটলে দ্রুত পদক্ষেপ নিন।’ একইসঙ্গে তিনি এটাও জানাতে ভোলেননি, উত্তরপ্রদেশে কাশ্মীরি যুবকদের উপর হামলার পর আদিত্যনাথ সরকার কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে। পাশাপাশি পাকিস্তানকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, সন্ত্রাস যদি চলতে থাকে তবে দুনিয়ায় শান্তি সম্ভব নয়। এই মুহূর্তে দেশে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে একটি জনমত গড়ে উঠেছে। আমরা সবদিক থেকেই নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করতে পারছি। পাশাপাশি, এদিন রাজনাথ সিংও সাংবাদিকদের জানান, ‘আমি দেশের সমস্ত রাজ্যগুলিকে নির্দেশ পাঠিয়ে দিয়েছি। বেশ কিছু জায়গায় কাশ্মীরিদের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। আমি সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের অনুরোধ করব তারা যেন তাদের রাজ্যের কাশ্মীরি যুবকদের রক্ষা করে ও তাদের ভালোবাসে। কারণ কাশ্মীরিরা আমাদেরই মানুষ ছিল আছে এবং থাকবে।’

 

উল্লেখ্য, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর ৪০ সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যুর জেরে উত্তরপ্ত হয়ে ওঠে গোটা দেশ। ঘটনার জেরে পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, লখনউ সহ একাধিক রাজ্যে বহু কাশ্মীরি যুবক ও ব্যবসায়ীরা হামলার শিকার হয়। এর পরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হয় ওই সমস্ত হামলাকারীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিতে। কিন্তু সে নির্দেশিকায় যে কাজ তেমন কিছু হয়নি তার প্রমাণ মিলেছে সম্প্রতি লখনউতে। এর জেরে ফের একবার কাশ্মীরিদের রক্ষায় কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here