টার্গেট বিএসএফ, গলায় আইইডি বোমা বেঁধে পাচার হচ্ছে গরু, তদন্তে সিবিআই

0
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: গরুকে ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে জলে। আর সেই সঙ্গে বাঁধা হচ্ছে বিস্ফোরক। লক্ষ্য বিএসএফ। ভয়াবহ এই ছকের অভিযোগ করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষা বাহিনী। দিল্লিতে এফআইআর করাও হয়েছে। তদন্তে নেমেছে সিবিআই।

সীমান্তের নদীতে কলা গাছে বেঁধে ভাসিয়ে দেওয়া হচ্ছে বহু সংখ্যক গরু। আর তাদের গলায় বাঁধা রয়েছে আলুমিনিয়ামের টিফিন কৌটো। তার ভেতরে রয়েছে বিস্ফোরক। কয়েক মাস আগে মালদার শোভাপুর আউটপোস্ট থেকে এরকম বহু সংখ্যক গরু ধরেছিল বিএসএফ। শুধু তাই নয় এর আগেও মুর্শিদাবাদের হারুডাঙা সীমান্তে বেশ কিছু গরু বাজেয়াপ্ত করে বিএসএফ। একই কায়দায় বিস্ফোরক সহ তাদের পাচার করা হচ্ছিল। এরপরেই প্রাথমিক বৈঠক করে বিএসএফ। তারপর রিপোর্ট প্রকাশ করে দিল্লিতে এফআইআর করে। আর এই তদন্তেই নামছে সিবিআই।

কলা গাছে বাঁধা হয়ে সীমান্তের নদীতে ভাসছে বাছুর। সেই বাছুরের গলায় বাঁধা রয়েছে লম্বা দড়ি। তা দূর অবধি চলে গিয়েছে। বহু দূরে ওই দড়িতে একই কায়দায় বাঁধা রয়েছে মারাত্মক আইইডি বিস্ফোরক সহ অনেক গরু। আগে বাছুর দেখতে পেয়ে বিএসএফ দড়ি ধরে তা তুললেই ঘটে যাবে ভয়ংকর বিস্ফোরণ। ক্যাম্প ধ্বংসের লক্ষ্যেই এক ছক করা হচ্ছে বলে দাবি জওয়ানদের।

কিছুদিন আগেই ভারত-বাংলাদেশ ‘ফ্ল্যাগ মিটিং’- এর আগে বাংলাদেশ থেকে বিএসএফ জওয়ানদের লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়। মৃত্যু হয় কমান্ডার বিজয়ভান সিং- এর। আহত হন আরও এক জওয়ানের। ভারতীয় সেনা এই ঘটনায় দায়ী করেছিল বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষীদের। এই বিস্ফোরক সহ বিএসএফ ক্যাম্প লক্ষ্য করে গরু পাচারের ঘটনাতেও বাংলাদেশ যোগ রয়েছে বলে মনে করছে ভারতীয় জওয়ান। শুধু তাই নয় এর পেছনে বড় চক্র রয়েছে বলেও মনে করা হচ্ছে। গরু পাচারকারীরাতো বটেই এমনকি এর সাথে সীমান্তে রাজনৈতিক যোগ রয়েছে বলেও ধারণা।

বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্বাঞ্চল দপ্তর আধিকারিকের বিশেষ দল এই তদন্তে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থাকে সাহায্য করবে। তবে দলকে পরিচালনা করবেন দিল্লি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here