Home Featured ২৬ জুলাই বন্ধ ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা, অভিযান পরিবহন ভবন

২৬ জুলাই বন্ধ ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা, অভিযান পরিবহন ভবন

0
২৬ জুলাই বন্ধ ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা, অভিযান পরিবহন ভবন
Parul

মহানগর ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন রাজ্যের সঙ্গে শহর কলকাতাতেও ক্রমাগত বেড়েই চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের দাম। যা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় চলছে প্রতিবাদ কর্মসূচি। ইতিমধ্যেই কলকাতায় পেট্রোলের দাম সেঞ্চুরি পার করেছে। আর সেই জ্বালানির অত্যাধিক দাম বৃদ্ধির কারণে এবার প্রতিবাদে নামছেন ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব।

আগামী ২৬ জুলাই কলকাতা শহরজুড়ে বন্ধ রাখা হচ্ছে ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব পরিষেবা। ক্রমাগত হারে জ্বালানির দাম বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে ট্যাক্সিচালকদের দাবি ভাড়া বৃদ্ধি করতে হবে। অন্যদিকে অ্যাপ ক্যাব ম্যানেজমেন্টের একাধিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ২৬ জুলাই চালকদের তরফ থেকে প্রতিবাদ জানানো হবে। যার কারণে, ঐদিন ট্যাক্সি ও অ্যাপ ক্যাব চালকদের তরফ থেকে পরিবহন ভবন অভিযানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচির কথা জানানো হয়েছে কলকাতায় অ্যাপ ক্যাব অপারেটরস ফোরাম ও ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সি অপারেটরস কোঅর্ডিনেশন কমিটি।

এছাড়াও আগামী ১৩ জুলাই এই সংগঠনের তরফ থেকে লেলিন মূর্তির পাদদেশে একটি জনসভার ডাক দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, এর আগেও এই দুটি সংগঠনের তরফ থেকে সংগঠনের সদস্যরা বিক্ষোভ দেখিয়েছিল। তাদের দাবি ছিল পেট্রোল-ডিজেলের অত্যাধিক হারের দাম বাড়ছে। তাতে পুরনো ভাড়ায় কোনোভাবেই ট্যাক্সি চালানো সম্ভব নয়। অবিলম্বে বাড়াতে হবে ট্যাক্সির ভাড়া। এর পাশাপাশি অ্যাপ ক্যাব ম্যানেজমেন্ট এর বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছে ক্যাব চালোকেরা। তারা জানিয়েছে, নানাভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে তাদের। এই বিষয়ে অ্যাপ ক্যাব সংগঠনের আহ্বায়ক জানিয়েছেন, অ্যাপ ক্যাব চালোকদের জন্য আমাদের এই লড়াই করতে হবে। যেদিন পরিবহন ভবন অভিযান রয়েছে, সেদিন রাস্তায় কোনও ট্যাক্সি ক্যাব চলবে না।

উল্লেখ্য, ১লা জুলাই থেকে করোনা বিধি নিষেধে ছাড় দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে বেশ কিছু পরিবহনের ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে। যেমন বলা হয়েছিল যে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে সরকারি বেসরকারি বাস। চলবে টোটো অটো। কিন্তু ট্রেন ও মেট্রোর এর ক্ষেত্রে কোনও ছাড় দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে, রাস্তায় সরকারি বাস নামলেও এখনো সঠিক ভাবে দেখা যায়নি বেসরকারি বাস। কারণ বেসরকারি বাস মালিকদের দাবি ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চললে, অত্যাধিক হারে যে জ্বালানীর দাম বেড়েছে তার দাম উঠবে না। তাই অবিলম্বে বাড়াতে হবে বাস ভাড়া। যদিও রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী কড়া নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছিলেন যে, আগের রাস্তায় নামানো হোক বাস, তারপরে ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here