kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, বর্ধমান: ক্লাসে বদমাইশি করায় শিশু শ্রেনীর এক ছাত্রকে গালে চড় মারায় রাগে অগ্নিশর্মা হয়ে ওই ছাত্রের বাবা ক্লাসে ঢুকে বেধড়ক মারধর করলেন শিক্ষককে। চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে বর্ধমান শহরের নবাবহাট এফপি স্কুলে। স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা রীনা দে জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দুপুরে ক্লাসে বদমাইসি করায় সেখ রামিজ নামে এক শিশু শ্রেণীর ছাত্রকে গালে চড় মারেন শিক্ষক মৈনাক মুখার্জ্জী। শিক্ষকের চড় শিশুটির গাল ছাড়িয়ে কানে গিয়ে লাগে। এরপরই ছাত্রটি বাড়ি গিয়ে তার বাবা সেখ আসগরকে জানান। তারপরেই এদিন ওই ঘটনা ঘটে।

নবাবহাট এফপি স্কুল সুত্রে জানা গিয়েছে, ছেলের কথা শুনে কোনও কিছু না বুঝেই এরপর সেখ রামিজের বাবা সেখ আসগর এদিন আচমকাই স্কুল চলাকালীন ক্লাসে ঢুকে শিক্ষক মৈনাক মুখার্জ্জীর কলার ধরে তাকে মারধর করেন। এমনকি লাঠি দিয়েও বেধড়ক মারতে থাকেন। বিষয়টি জানতে পেরে স্কুলের অন্য শিক্ষকেরা গিয়ে কোন মতে পরিস্থিতি সামাল দেন। গোটা ঘটনায় স্কুলে আতঙ্ক ছড়িয়েছে শিক্ষক মহল থেকে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যেও। স্কুলের শিক্ষকেরা জানিয়েছেন, চোখের সামনে মাস্টারমশাইকে অভাবে মার খেতে দেখে পড়ুয়ারা খুব ভয় পেয়ে গিয়েছে। অনেকেই ভয়ে কান্নাকাটি জুড়ে দেয়। প্রধান শিক্ষিকা জানিয়েছেন, ছাত্রছাত্রীরা বদমাইশি করলে তাদের শাসন তো করতেই হবে। তবে এই ঘটনায় তারা রীতিমত আতঙ্কিতই।

প্রধান শিক্ষিকা আরও জানিয়েছেন, আহত শিক্ষকের চিকিত্সা করানো হয়েছে। গোটা ঘটনাটি তিনি স্কুলের পরিদর্শককে জানিয়েছেন। যদিও ওই শিক্ষক বা তার পরিবারের কেউই এব্যাপারে মুখ খুলতে রাজী হননি। অভিযুক্ত অভিভাবক সেখ আসগর জানিয়েছেন, তিনি রাগের মাথায় এটা করে ফেলেছেন। এজন্য তিনি অনুতপ্তও। অপরদিকে, গোটা বিষয়টি সম্পর্কে জেলা প্রাথমিক বিদ্যালয় সংসদের চেয়ারম্যান অচিন্ত্য চক্রবর্তী জানিয়েছেন, এখনও এব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না। তিনি খোঁজ নিয়ে দেখছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here