ডেস্ক: পশ্চিমী পোশাক খাস কলকাতা জুড়ে যতই দাপটের সঙ্গে রাজত্ব করুক না কেন, মানুষের মানসিকতা যে এখনো অনেক পিছিয়ে রয়েছে সেটা আবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল শহরের এক স্কুলের ঘটনা। নাচ নিয়ে কেরিয়ার গড়তে আগ্রহী কলকাতার যুবক অভিজিৎ কুন্ডু কয়েকমাস আগেই যোগদান করেছিলেন মহানগরীর এক ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে। পার্ট টাইম শিক্ষক হিসাবে সেখানে যোগদান করে অভিজিৎ সেখানে অঙ্ক আর বিজ্ঞানের ক্লাস নিতেন। সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, অভিজিৎ স্কুলে গোপন করেনি যে সে সমকামী। গত ফেব্রুয়ারি মাসে তাকে স্কুলের চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়।

এ বিষয়ে অভিজিৎ জানিয়েছেন, তাকে কোন কিছু না জানিয়েই বিনা নোটিসে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। যদিও সংশ্লিষ্ট স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অভিজিৎ নিজেই স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিল নাচের কেরিয়ারে আরো মন দেওয়ার জন্য আর পার্ট টাইম শিক্ষকতার চাকরি করবে না। সেটা জানার পরেই তাকে জানানো হয়েছিল দ্রুত অন্য কোন শিক্ষক খুঁজে নিয়ে তাকে রিলিজ করে দেওয়া হবে। সেই মত অন্য শিক্ষক খুঁজে নিয়ে তাকে ছাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই স্কুলের এক টিচার জানিয়েছেন, অভিজিৎ কয়েক মাস আগে তার নাচের একটি ভিডিও ইউটিউব ও ফেসবুকে শেয়ার করেছিল যা স্কুলের পড়ুয়াদের অভিভাবকদের অনেকেই দেখেছিলেন। তাদেরই কেউ কেউ স্কুলে এসে আপত্তি জানান অভিজিতকে নিয়ে। তারপরেই তাকে অপসারণ করার সিদ্ধান্ত নেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here