ডেস্ক: ফের ধর্ষণের অভিযোগে গেফতার শিক্ষক। ঘটনাটি ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের ইলুরু শহরে। ইংরেজির শিক্ষক রামবাবুর বিরুদ্ধে পড়ানোর আড়ালে ২ বছর ধরে লাগাতার এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সামাজিক লজ্জার মুখে ও শিক্ষকের ভয়ে ঘটনাটি বহুদিন ধরেই গোপনে রেখেছিলেন ওই ছাত্রী। কিন্তু সম্প্রতি নির্যাতিতা তরুণী গর্ভবতী হয়ে পড়ায় ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে। ঘটনা এখানেই শেষ নয়, এরপর ওই অভিযুক্ত শিক্ষক জোর করে ছাত্রীকে গর্ভপাত করানোর ওষুধও খাওয়ায়। তারপর থেকেই শুরু হয় নির্যাতিতার রক্তক্ষরণ। এরপর নির্যাতিতার মা-বাবা তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করে।

এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পরই ক্ষোভে ফেটে পড়ে ওই ছাত্রীর পড়শি ও আত্মীয় পরিজনরা। শিক্ষকের বাড়িতে হানা দেয় এবং তাঁকে ব্যাপক মারধর শুরু করে। ঘটনা এখানেই শেষ নয়, মারধরের পর ওই অভিযুক্ত শিক্ষককে রাস্তায় নগ্ন করে হাঁটিয়ে থানায় নিয়ে যায় প্রতিবেশীরা। এরপর অন্ধ্রপদেশ থানার পুলিশ তাকে গেফতার করে এবং অভিযোগের ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here