jet-india

ডেস্ক: বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে শেষপর্যন্ত নিজেদের সমস্ত উড়ান অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল করে দিয়েছে জেট এয়ারওয়েজ। বিমান সংস্থার এই সিদ্ধান্তে ফাঁপরে প্রচুর সাধারণ মানুষ। তেমনই মহা বেকায়দায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। কারণ, ওই জেট এয়ারওয়েজের বিমানে চড়েই যে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়ার কথা ছিল ভারতীয় দলের। সেই মতো বিমানের অগ্রিম টিকিটও কেটে রেখেছিলেন বোর্ড কর্তারা। এখন জেট ‘বন্ধ’ হয়ে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েছে বিসিসিআই।

সম্প্রতি এই নিয়ে সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এক বোর্ড কর্তা জানান,

‘এটা আমাদের কাছে একটা চ্যালেঞ্জ। ভারতীয় দল যেন পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ীই ২২ মে ইংল্যান্ড রওনা হয়, সেটা আমরা সুনিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর।’

কিন্তু কীভাবে তা সম্ভব, সেটা জানা নেই কারও। পুরো ভারতীয় দলের জন্য ৩০টি বিজনেস ক্লাস সিট দরকার। কিন্তু এই মুহূর্তে জেটের বিমান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অন্যান্য বিমান সংস্থার উপর চাপ বেড়েছে। ফলে এই অল্প সময়ে এতগুলি বিজনেস ক্লাস টিকিটের ব্যবস্থা করা যথেষ্ট শক্ত।

 

অন্যদিকে, ওই সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, বিকল্প হিসেবে এমিরেটসের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছে বিসিসিআই। সমান্তরাল ভাবে যোগাযোগ করা হচ্ছে ভার্জিন এয়ারওয়েজের সঙ্গেও। তবে সমস্যা সমাধানে দলের সাপোর্ট স্টাফদের অন্য শ্রেণীতে স্থানান্তরিত করা হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। যেহেতু ২৫ মী নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম অয়ার্ম আপ ম্যাচ রয়েছে, তাই কোনও ভাবেই ভারতের ‘বিলেত’ যাত্রা বিলম্বিত করতে চায় না বিসিসিআই।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here