ডেস্ক: পরীক্ষায় ‘ফুলমার্কস’ নিয়ে পাশ করল দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত তেজস যুদ্ধবিমান৷ এই যুদ্ধবিমানের দ্বারা অত্যাধুনিক প্রযুক্তির এক অসামান্য নিদর্শন পেশ করল ভারতীয় বায়ুসেনা৷ ভাসমান অবস্থায় যুদ্ধবিমানে জ্বালানি ভরার পরীক্ষায় সফল হল ভারত৷ নাম লেখালো আমেরিকা, রাশিয়ার মতো বিশ্বের মুষ্টিমেয় দেশগুলির পাশে!

আকাশে ওড়ার সময় জ্বালানি শেষ হয়ে এলে বিমানকে মাটিতে নামিয়ে আনতে হয়৷ কিন্তু নয়া প্রযুক্তিতে জ্বালানি মাঝ আকাশে শেষ হয়ে গেলেও আর নীচে নামার প্রয়োজন নেই৷ বিশেষ পদ্ধতিতে মাঝ আকাশেই ভরে নেওয়া যাবে জ্বালানি৷ এদিন সামরিক মহড়ায় এই পরীক্ষাই দিতে হয়েছিল তেজস যুদ্ধবিমানকে৷ আর প্রথম পরীক্ষাতেই চূড়ান্ত সফল তেজস৷ বায়ুসেনা সূত্রে জানা যাচ্ছে, সোমবার গোয়ালিওর থেকে প্রায় ২০ হাজার ফুট উচ্চতায় বায়ুসেনার একটি মালবাহী বিমান থেকে প্রয়োজনীয় জ্বালানি ভরা হয় তেজসে৷ সেই জ্বালানির পরিমাণ ছিল প্রায় ১৯০০ কেজি৷

সামরিক বিমান প্রস্তুতকারী সংস্থা হিন্দুস্তান অ্যারোনটিক্স লিমিটেড বা হ্যাল নির্মাণ করেছে এই তেজস যুদ্ধবিমানের৷ বায়ুসেনার কাছে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এই বিমানের সংখ্যা বর্তমানে ৯৷ জানা যাচ্ছে, এরকমই আরও ১০০টি বিমান আসতে চলেছে বায়ুসেনার কাছে৷ প্রধানমন্ত্রীর ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’র যে এটি বড় সাফল্য তা বলতে কোনও বাধা নেই৷ উল্লেখ্য, শব্দের দ্বিগুণেরও বেশি গতি রয়েছে তেজস যুদ্ধবিমানের। পরীক্ষায় সফল হলেও বাকি আছে প্রয়োজনীয় শংসাপত্র পাওয়া৷ শংসাপত্র পেলেই যুদ্ধক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে মাঝ আকাশে জ্বালানি ভরার এই প্রযুক্তি৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here