yogi
আন্দোলনকারীদের প্রতি কড়া মনোভাব নিয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার।

 

মহানগর ডেস্ক: আন্দোলনকারীদের আজ রাতের মধ্যে বিক্ষোভ তুলে নিয়ে রাস্তা খালি করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিল উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকার। উত্তরপ্রদেশের গাজিপুর সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকদের এই চরম সময়সীমা বেঁধে দিল প্রশাসন। দিল্লি-উত্তরপ্রদেশের সীমান্তে আন্দোলন আজ রাতের মধ্যে শেষ করে রাস্তা খালি করার নির্দেশ দিয়েছে যোগী সরকার।

গতবছর নভেম্বর মাস থেকেই কৃষি বিল প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে দিল্লির সীমানায় আন্দোলনে সরব হয়েছিলেন বেশ কিছু কৃষক সংগঠন। ২৬শে জানুয়ারি দিল্লিতে ট্র্যাক্টর মিছিল করার কর্মসূচি নিয়েছিলেন তাঁরা। প্রথমে অনুমতি না দিলেও শেষে তাঁদের মিছিল করার অনুমতি দেয় দিল্লি পুলিশ। কিন্তু প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন আন্দোলনের নামে কার্যত তাণ্ডব চালান হয়। দিল্লিজুড়ে হিংসার ঘটনাও ঘটে। এই ঘটনার জেরেই আহত হন প্রায় চারশো পুলিশকর্মী।

কৃষক আন্দোলনের মাথা রাকেশ টিকায়েতের নামে গাজিপুর সীমানায় নোটিস ঝুলিয়েছে পুলিশ। সেই নোটিসে ৩ দিনের মধ্যে হামলাকারীদের নাম পুলিশের কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে। পুলিশ প্রশ্ন করেছে, কেন রাকেশের মতো আরও বেশ কয়েকজন কৃষক নেতার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করা হবে না? পাশাপাশি, একটি ভিডিও ফুটেজ প্রকাশ করেছে দিল্লি পুলিশ। দেখা গিয়েছে, লালকেল্লা এলাকার মধ্যে একটি বাস ভাঙচুর করছেন প্রতিবাদীরা। সেই ভিডিও প্রকাশ করে আন্দোলনের গতিপথ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পুলিশ।

খবর পাওয়া গিয়েছে, তৎপর যোগী প্রশাসন ইতিমধ্যে উত্তরপ্রদেশের বেশ কয়েকটি এলাকা থেকে কৃষকদের ধর্না তুলে দিয়েছে। চিল্লা, নয়ডা, বদায়ূঁ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে কৃষকদের। পুলিশ জানিয়েছে, সামান্য কথাতেই কৃষকরা এলাকা খালি করে দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here