ডেস্ক: মঙ্গলবারের পর ফের শুক্রবার নির্বাচনী জনসভাকে ঘিরে ফের রক্তাক্ত হল পাকিস্তান। পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনের আগে নির্বাচনী জনসভায় আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর এবার নির্বাচনী জনসভায় চলল জঙ্গি হামলা। ঘটনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ৪ জনের আহত হয়েছেন আরও ৩১ জন। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের বান্নু জেলার হাভেদ অঞ্চলে।

জানা গিয়েছে, এদিন ওই এলাকায় নির্বাচনী জনসভা ছিল মুত্তাহিদা মজলিস–এ–আমাল বা এমএমএ–র প্রার্থী আক্রম খান দুরানির। যেখানে জনসভা হওয়ার কথা ছিল সেখান থেকে মাত্র কিছুটা দুরেই হয় এই বিস্ফোরণ। এলাকায় বিপুল পরিমাণ নিরাপত্তা থাকা সত্ত্বেও কিভাবে এই ঘটনা ঘটল তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। ঘটনার জেরে আহত হয়েছেন এমএমএ–র প্রার্থী আক্রম খান দুরানি। তাঁর অভিযোগ, এই নিয়ে তার উপর ৫ বার হামলা চালাল দুষ্কৃতীরা। যদিও এই ঘটনার আগে পুলিশ তাঁকে সতর্ক করেছিল এই হামলার বিষয়ে। ঘটনায় তাঁর গাড়ি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হলেও প্রাণে বেঁচে যান তিনি। প্রসঙ্গত, প্রাক্তন পাক সরকারের আবাসনমন্ত্রী আক্রম দুরানির এবার প্রতিপক্ষ পাকিস্তান তেহরিক–ই–ইনসাফ বা পিটিআই সুপ্রিমো ইমরান খান।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাতে পাকিস্তানের ওই জনসভায় আওয়ামি ন্যাশনাল পার্টি (এএনএম)এর সভা চলাকালীন আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে মৃত্যু হয় ওই দলের প্রার্থী হারুন বিলোরের। সেই ঘটনায় সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে দল। যথোপযুক্ত নিরাপত্তা না দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে। সেই ঘটনার পর এদিন ফের রক্তাক্ত হল পাকিস্তান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here