ডেস্ক: রমজান মাসে ভারতের তরফ থেকে হামলা বন্ধ রাখা হলেও পাকিস্তানের স্বভাব পরিবর্তন হওয়ার নয়। যুদ্ধ বিরতির সুযোগ নিয়ে উপত্যকার সোপিয়ান সেক্টরে সপ্তাহের শুরুতেই সোমবার ফের গ্রেনেড হামলা চালাল পাক জঙ্গিরা। সোপিয়ানের বাটাপোরা চকে পাক জঙ্গিদের এই হামলায় দুই পুলিশকর্মী সহ ১০ জন সাধারণ নাগরিক গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতদের ইতিমধ্যেই হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, গত চারদিনে এই নিয়ে ১০ বার উপত্যকায় গ্রেনেড হামলা চালাল পাকিস্তান।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোপিয়ানের থানা লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুড়েছিল জঙ্গিরা। কিন্তু লক্ষ্য ভ্রষ্ট হওয়ার ফলে সেই গ্রেনেড রাস্তার উপরই ফেটে যায়। এর ফলেই ঘায়েল হন বেশ কিছু পথ চলতি মানুষ। শীর্ষ পুলিশ কর্তা সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করার পাশাপাশি জঙ্গিদের খোঁজে তল্লাশি অভিযানেও নেমে পড়েছে সেনার জওয়ানরা।

উল্লেখ্য, গতকালই জম্মু কাশ্মীরের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হংরাজ অহীর পাকিস্তানকে কড়া ভাষায় সতর্ক করে বলেছিলেন, পাকিস্তান যদি নিজেদের হামলা বন্ধ না করে তবে যুদ্ধ বিরতি চুক্তি মূল্যহীন হয়ে পড়বে। একই সঙ্গে ভারতও পাল্টা হামলা চালাতে পিছু হটবে না। রমজান মাস চলার কারণে এখনও পর্যন্ত ভারতও পাল্টা হামলা চালানোর থেকে বিরত রয়েছে। কিন্তু পাকিস্তান যেভাবে একের পর এক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে তাতে বেশিদিন পাক জঙ্গিরা সুরক্ষিত থাকতে পারবে বলে মনে হয়না।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here