kailash

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রথম দফা নির্বাচন শেষ হওয়ার আগেই বিজেপি দাবি করল, রাজ্যে প্রথম দফায় ৯০ শতাংশ জায়গায় শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য বিজেপি নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। শনিবার কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের নেতৃত্বে বিজেপির একটি প্রতিনিধি দল রাজ্যের নির্বাচন কমিশনের দফতরে যান। কৈলাস বিজয়বর্গীয় জানান, রাজ্যে কিছু বিক্ষিপ্ত ঘটনা ছাড়া ভোট শান্তিপূর্ণ হয়েছে। রাজ্যের প্রথম দফা নির্বাচনে কমিশনের ভূমিকা নিয়ে খুশি বিজেপি, তা জানাতেই নির্বাচনের কমিশনের দফতরে আসা বলে কৈলাস বিজয়বর্গীয় মন্তব্য করেছেন।

রাজ্য নির্বচন কমিশন দফতরের সামনে সাংবাদিকদের কৈলাস বিজয়বর্গীয় জানান, কাঁথিতে সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে। ভোটের সময় তৃণমূল ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে বলে তিনি শাসক দলের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন। তিনি বলেন, এই বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে। এছাড়াও বেশ কিছু বিক্ষিপ্ত ঘটনা ঘটেছে। তবে আরও সতর্ক হলে পরের দফার নির্বাচনগুলোতে এই ধরনের ঘটনা এড়ানো যাবে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, রাজ্যে প্রথম দফা নির্বাচনে ৯০ শতাংশ জায়গায় ভোট নির্বিঘ্নে হয়েছে। তিনি দাবি করেছেন, রিগিং আগের থেকে অনেক কম হয়েছে। বিজয়বর্গীয় দাবি করেন, চার চারদশক পরে বাংলায় শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে।

শনিবার সকালে মেদিনীপুর সদরে তিনটি বুথ জ্যামের অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ বিজেপির দিকে। তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করেছে, এক পুলিশ কর্মীর চালক বিজেপির হয়ে ভোট করাচ্ছেন। এক তৃণমূল কর্মীর মাথা ফাটিয়ে দেওয়ারও অভিযোগ করা হয়েছে। কাঠগোড়ায় বিজেপি।

অন্য দিকে, কাঁথির সবাজপুর সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়ি ভাঙচুর হয়। ঘটনায় আহত হয়েছেন গাড়ির চালক। গাড়ির কাঁচ ভেঙে দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে। সৌমেন্দু অধিকারী অভিযোগ করেছেন, সবাজপুরের বুথে রিগিং করছে তৃণমূল। সেখানে যেতেই গাড়িতে হামলা চালনা হয়। তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছে, বহিরাগত নিয়ে বুথ প্রবেশ করার চেষ্টা করছিলেন সৌমেন্দু অধিকারী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here