kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ভারতীয় অর্থনীতি যে খুব একটা সুবিধাজনক অবস্থায় নেই সেটা বর্তমান সময়ে আলাদা করে বলে দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে না। তা সত্ত্বেও এদিন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জোর গলায় দাবি করেছেন, মনমোহন সিং এবং রঘুরাম রাজনের সময় সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় ছিল ব্যাঙ্কগুলি। সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নির্মলার এই বক্তব্যকে কার্যত ধূলিসাৎ করে দিয়েছেন সদ্য নোবেলজয়ী বাঙালি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। কোনও রাখঢাক না রেখেই তিনি সরাসরি বলে দিয়েছেন, ভারতীয় ব্যাঙ্কিং সেক্টর এই মুহূর্তে মারাত্মক সঙ্কটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। যেই বিপদের শিকড় অনেক গভীরে, এবং অবিলম্বে সেদিকে নজর দেওয়া আবশ্যক।

অভিজিতের কথায়, “পুরো ব্যাঙ্কিং সিস্টেমটাই এই মুহূর্তে বিরাট সমস্যার সম্মুখীন। আমার ধারণা অনেক বছর ধরেই পুরো বিষয়টা ঘেঁটে রয়েছে, ফলস্বরূপ বর্তমানে এই দশা। এহেন পরিস্থিতি শুধরাতে প্রচুর টাকা খরচ করার প্রয়োজন রয়েছে। কিন্তু, ব্যাঙ্কের দশা ফেরানোর মতো টাকা এই মুহূর্তে সরকারের কাছে নেই। ফলে আমার মনে হয় এটা ব্যাঙ্কগুলিকে বিক্রি করে দেওয়ার সুযোগ দিয়ে দিচ্ছে (সরকারকে)।” এই সমস্যার যত গভীরে যাওয়া হবে, আরও বেশি সমস্যা একে একে বেরিয়ে আসবে বলে জানিয়েছেন নোবেলজয়ী বাঙালি। সম্প্রতি পিএমসি ব্যাঙ্কে সঙ্কটের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, “এটাই যেন একটা প্যাটার্ন হয়ে গিয়েছে যে গতকাল পর্যন্ত একটা নতুন ব্যাঙ্কের সবকিছু ঠিকঠাক থাকা অবস্থায় আচমকা সব গুলিয়ে যাচ্ছে। তাই আমার অনুমান, বিপদটা অনেক গভীরে ছড়িয়ে আছে। দেশের অসংখ্য ব্যাঙ্ক একেবারেই ভালো অবস্থায় নেই এবং তাদের পরিস্থিতি পুনরুদ্ধার করতে প্রচুর প্রচুর টাকার প্রয়োজন।”

তবে যেই পরিস্থিতিকে এখন সমস্যা বলে মনে করা হচ্ছে তা কিছুই নয়, এটা হিমশৈলের চূড়া মাত্র। এ কথা জানান অভিজিৎ। ব্যাঙ্কের ওপর থেকে গ্রাহকদের আস্থা যে ক্রমশ উঠে যাচ্ছে সেদিকেও দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তিনি। রিজার্ভ ব্যাঙ্ককেও ছেড়ে কথা বলেননি অভিজিৎ। শীর্ষ ব্যাঙ্ক যে এই সমস্যা সমাধানে যথেষ্ট সজাগ নয় সে কথাও উঠে এসেছে অভিজিতের সাক্ষাৎকারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here