মহানগর ডেস্ক: শুরু হয়ে গেছে দ্বিতীয় পর্যায়ের করোনা টিকাকরণ। সোমবার সকালেই দিল্লির এইমস হাসপাতালে টিকার প্রথম ডোজটি নিয়েছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরইমধ্যে আগামীকাল থেকেই করোনার টিকা পেতে চলেছেন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা। ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভ্যাক্সিন এবং সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি কোভিশিল্ড, টিকা নেওয়ার ব্যাপারে বিচারপতিদের পছন্দের উপরেই অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র।

সূত্রের খবর, আগামীকাল থেকে সুপ্রিম কোর্টের সমস্ত বিচারপতিদের করোনা টিকা দেওয়া হবে। নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী টিকা বাছাই করতে পারবেন বিচারপতিরা। বর্তমান বিচারপতিদের পাশাপাশি শীর্ষ আদালতের প্রাক্তন বিচারপতিদেরও করোনার টিকা দেওয়া হবে বলে জানা গিয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট চত্বরেই এই টিকাকরণের আয়োজন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৬ই জানুয়ারি ভারতে শুরু হয়েছিল প্রথম পর্যায়ের টিকাকরণে। প্রথম দফায় দেশের স্বাস্থ্য কর্মী এবং প্রথম সারির করোনা যোদ্ধাদের টিকা দেওয়া হয়েছিল। আজ থেকে দেশ জুড়ে শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় পর্যায়ের করোনা টিকাকরণ। ষাট বছরের ঊর্ধ্বে থাকা দেশের সমস্ত নাগরিককে করোনা প্রতিষেধক দেওয়া হবে। এছাড়াও ৪৫-৬০ বছরের মধ্যে যারা দীর্ঘদিন ধরে রোগে ভুগছেন, তাঁদেরও করোনা টিকা দেওয়া হবে।

সূত্রের খবর, দ্বিতীয় পর্যায়ে দেশের ২৭কোটি নাগরিককে করোনার টিকা দেওয়া হবে। সরকারি হাসপাতালে থেকে বিনামূল্যে মিলবে এই পরিষেবা। সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি দেশের প্রায় কুড়ি হাজার বেসরকারি হাসপাতালেও করোনা টিকা দেওয়া হবে। তবে বেসরকারি হাসপাতালে টিকা নিতে হলে ২৫০ টাকা খরচ করতে হবে বলে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here