Home Featured তৃণমূলে বড়সড় রদবদলের সম্ভাবনা! মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ঘন্টা তিনেকের বৈঠক পিকে’র

তৃণমূলে বড়সড় রদবদলের সম্ভাবনা! মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ঘন্টা তিনেকের বৈঠক পিকে’র

0
তৃণমূলে বড়সড় রদবদলের সম্ভাবনা! মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ঘন্টা তিনেকের বৈঠক পিকে’র
Parul

মহানগর ডেস্ক: সম্প্রতি শোনা যাচ্ছিল আগামী সপ্তাহেই দলের সাংগঠনিক স্তরে রদবদল করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তারপরেই আজ অর্থাৎ শুক্রবার দুপুরে প্রায় ঘণ্টা তিনেক প্রশান্ত কিশোরের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। পিকের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠক নিয়ে তৃণমূলের অন্দরমহলে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে জল্পনা।

তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে যে, দল এবং প্রশাসনের কাজকে সম্পূর্ণ আলাদা করে রাখতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী। যাতে করে দলের সঙ্গে প্রশাসনিক কাজে কোনো সমস্যা দেখা না যায়। এবং দলের সংগঠন বৃদ্ধির কাজ সুষ্ঠুভাবে করা যায়। সেই লক্ষ্যেই হয়তো এবার তৃণমূল সরকার ‘এক ব্যক্তি একপদ’ নিয়ম চালু করছে। বোঝাই যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী দুটি বিষয়কে একেবারেই আলাদা রাখতে চাইছেন। অর্থাৎ কোনও মন্ত্রী যেমন জেলা সভাপতি বা দলের অন্য কোনও সাংগঠনিক পদে থাকবে না। ঠিক সেই রকম আবার দলের কোনও পদাধিকারী প্রশাসনিক পদে থাকবে না।

শহর থেকে জেলা, জেলা থেকে ব্লক স্তর সমস্ত জায়গায় এই নিয়ম চালু করতে চলেছে রাজ্য সরকার। আর এই নতুন নিয়মের ফলে বেশ কয়েকটি জেলার জেলা সভাপতির বদল করতে পারে শাসক শিবির। তার মধ্যে রয়েছে চারটি জেলা। যেখানকার জেলা সভাপতিরা এই মুহূর্তে রাজ্যের মন্ত্রী পদে রয়েছেন। এই চার মন্ত্রীকে ছাড়তে হতে পারে যেকোনো একটি পদ। এছাড়াও তৃণমূল সূত্রে আরও জানা গিয়েছে যে, দ্রুত এই রদবদলের কাজ সেরে উপ-নির্বাচন ও পুরসভার নির্বাচনী প্রস্তুতিতে নেমে পড়বে রাজ্য সরকার।

উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনের পর প্রশান্ত কিশোর জানিয়েছিলেন যে তিনি আর পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করবেন না। কিন্তু পরে দেখা গিয়েছে প্রশান্ত কিশোরের আইপ্যাক তৃণমূলের সঙ্গে কাজ করছে। অর্থাৎ প্রশান্ত কিশোর আবারো তৃণমূলের আসন্ন নির্বাচনে পরামর্শদাতা হিসেবেই কাজ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here