kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে চলতি মাসের কুড়ি তারিখে ভার্চুয়াল বৈঠক ডাকলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৈঠকে ডাকা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সহ ৯ রাজ্যকে। ওই বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অংশ নেন কিনা, তা এখনও জানা যায়নি।

গোটা দেশেই হুহু করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। মারণ ভাইরাসের অশ্ববেগে লাগাম টানতে দেশ জুড়ে শুরু হয়েছে টিকাকরণ। টিকাকরণ চললেও, টিকার সরবরাহ প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। তাই বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে টিকা নেওয়ার লাইন দীর্ঘতর হচ্ছে দিনের পর দিন।

শুধু টিকা কেন, প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল অক্সিজেনের সরবরাহও। তার জেরে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে করোনা সংক্রমিত রোগীর মৃত্যু হচ্ছে বলেও অভিযোগ। গণচিতা জ্বেলেও সামাল দেওয়া যাচ্ছে না পরিস্থিতি। শ্মশানে, গোরস্থানে দীর্ঘ সারি মৃতদেহের। এই পরিস্থিতি থেকে বেরনোর উপায় কী, তা পরিষ্কার নয় কারও কাছেই।

ভারতের বিপদের দিনে পাশে দাঁড়িয়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। আসছে সাহায্যও। তার পরেও পরিস্থিতির বিশেষ হেরফের হয়নি। এমতাবস্থায় চলতি মাসের ২০ তারিখে ভার্চুয়াল বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ওই বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের নটি রাজ্যকে ডাকা হয়েছে।

২রা মে বিধানসভা নির্বাচনের ফল বের হয় এ রাজ্যে। তার তিন দিন পরে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরই  দিন দুয়েক পরেই করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলায় ভার্চুয়াল বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই বৈঠকে অংশ নেননি মুখ্যমন্ত্রী। অংশ নিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্র সচিব। তাই আসন্ন ভার্চুয়াল বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী অংশ নেন কিনা, এখন তাই দেখার।       

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here