kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : রাজ্যে অব্যাহত নির্বাচনোত্তর হিংসা। তা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি ফোন করেন রাজ্যপালকে। এনিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ শানালেন রাজ্যসভার সাংসদ তৃণমূলের ডেরেক ও ব্রায়েন।

২রা মে ফল ঘোষণা হয়েছে বিধানসভা নির্বাচনের। তার পর থেকে কোথাও আক্রান্ত হচ্ছে বিজেপি। কোথাওবা খুনের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যকে। স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। এ ব্যাপারে তিনি ফোন করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে। টুইট করে ঘটনাটি জানিয়েছেন রাজ্যপাল। এর পরেই প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধলেন সাংসদ তৃণমূলের ডেরেক ও ব্রায়েন। তিনি লেখেন, রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে রাজ্যপালকে ফোন করেছেন প্রধানমন্ত্রী। রাজনৈতিক চমক না দিয়ে ফোনে কোভিড নিয়ে কাজ করুন।

কেবল আক্রমণই নয়, একটি সর্বভারতীয় নিউজ পোর্টালের একটি খবরের দিকেও প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন সাংসদ। খবরটিতে প্রশ্ন করা হয়েছে, গত পাঁচ দিনে ২৫টি বিমানে দিল্লিতে এসেছে ৩০০ টন করোনা চিকিতসার সরঞ্জাম। সেসব কোথায় গেল? যেসব সরঞ্জাম এসেছে, তার মধ্যে রয়েছে সাড়ে ৫ হাজার অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর, ৩ হাজার ২০০ অক্সিজেন সিলিন্ডার, ১ লক্ষ ৩৬ হাজার রেমডিসিভির ইনজেকশান। সেসব কোথায় গেল?   

গোটা দেশেই বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। রোগ প্রশমনে প্রয়োজন অক্সিজেন, টিকা, চিকিতসা সরঞ্জামের। এসবই প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল বলে অভিযোগ। স্বাভাবিকভাবেই সংক্রমণের পাশাপাশি বাড়ছে মৃত্যুহারও। টিকা উতপাদক সংস্থা সিরাম ইনসটিটিউট জানিয়ে দিয়েছে জুলাইয়ের আগে দেওয়া যাবে না বেসরকারি ক্ষেত্রে করোনা প্রতিষেধক। এসব নিয়েই সোচ্চার হয়েছেন বিরোধীরা। এদিন সেদিকেই প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন ডেরেক।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here