এবার পরিস্কার হয়ে গেল কাশ্মীরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক নেই, ক্ষোভ চেপেই কটাক্ষ রাহুলের

0
228

মহানগর ওয়েবডেস্ক: বিমান পাঠাচ্ছি, এসে দেখে যান জম্মু কাশ্মীরে সব স্বাভাবিক আছে কিনা। রাহুল গান্ধীর উদ্দেশে রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক ঠিক এই কথাগুলোই বলেছিলেন। সেই মত এদিন ১১ জন প্রতিনিধিকে নিয়ে উপত্যকার বিমানে চেপে বসেন রাহুল গান্ধী। কিন্তু এদিন জম্মু কাশ্মীর পৌঁছনর পর বিমান থেকে নামতেই দেওয়া হয়নি তাঁদের। দিল্লি ফিরে এসে সাংবাদিকদের সামনে রাহুল বলেন, ‘রাজ্যপালের আমন্ত্রণ স্বীকার করে আমরা জম্মু কাশ্মীর গিয়েছিলাম। আমরা ওখানকার বাসিন্দাদের অবস্থা সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলাম কিন্তু আমাদের বিমানবন্দর থেকে বের হতেই দেওয়া হয়নি। অর্থাৎ জম্মু কাশ্মীরে যে সব স্বাভাবিক নেই সেটা পরিস্কার।’

রাহুলের আরও অভিযোগ, সংবাদ মাধ্যম সহ সকলেই বেপথে চালনা করা হচ্ছে। বিরোধীদের প্রতিনিধি দল এদিন বিমানে চেপে বসার পরই অবশ্য সাফ হয়ে গিয়েছিল যে তাঁদের উপত্যকায় নামতে দেওয়া হবে না। জম্মু কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক বলেন, ‘এখন এখানে ওনার কোনও প্রয়োজন নেই। আমি ডেকে পাঠিয়েছিলাম ঠিকই কিন্তু উনি রাজনীতি করা শুরু করে দিলেন। ওরা যেটা করলেন সেটা রাজনৈতিক সক্রিয়তা ছাড়া আর কিছুই নয়।’ ৩৭০ ধারা নিয়ে সংসদে বিতর্ক চলার সময় রাহুলের নীরবতাকেও একহাত নেন তিনি। বলেন, ‘এই সময় ওনার কোনও দরকার নেই। যখন ওনার সঙ্গিরা সংসদে কথা বলছিলেন তখন ওঁর প্রয়োজন ছিল।’

রাহুল গান্ধীর প্রতিনিধিদলে সামিল ছিলেন কাশ্মীরের ভূমিপুত্র তথা বরিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা ও রাজ্যসভার সাংসদ গুলাম নবি আজাদও। ফিরে আসার পর সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের শহরে পা রাখতে দেওয়া হয়নি। কিন্তু বাস্তবটা হচ্ছে জম্মু কাশ্মীরের পরিস্থিতি ভয়াবহ। বিমান সফরে কাশ্মীরের মানুষের কাছে থেকে আমরা যে গল্প শুনেছি, তা পাথরের চোখ থেকেও জল বের করে দেবে।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here