মহানগর ডেস্ক: দেশে আছড়ে পড়েছে করোনার ঢেউ। বিভিন্ন রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। পৃথিবীর সব রেকর্ড ভেঙে দৈনিক আক্রান্তের নিরিখে শীর্ষে ভারত। এর মধ্যেই দিল্লি, উত্তর প্রদেশ সহ বিভিন্ন রাজ্যে হাসপাতালে মিলছেনা বেড। চলছে অক্সিজেনের আকাল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে এর মধ্যেই কেন্দ্রকে শিল্পাঞ্চলে অক্সিজেন সরাবরাহ করতে মানা করেছে হাইকোর্ট। এবার অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে নয়া সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। অক্সিজেনের ঘাটতি নিয়ে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকে বসছেন বলে টুইটারে জানিয়েছেন।

এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক অক্সিজেনের ঘাটতি মেটাতে নিয়েছে নয়া পদক্ষেপ। মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, করোনার সংক্রমনে পরিস্থিতি সামাল দিতে চিকিৎসা সামগ্রী এবং অক্সিজেন সরবরাহ করার জন্য পণ্যদ্রব্যে কোনও রকম বাধা থাকবে না। সরবরাহের সীমাবদ্ধতা থাকবে না কোনও রাজ্যে। পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত অক্সিজেন সরবরাহ করা যাবে কোনও শিল্পাঞ্চলে। এছাড়াও অক্সিজেন সরবরাহে আন্তঃরাজ্য পরিবহণে লাগবে না কোনও শুল্ক। অক্সিজেনের পরিমাণের ওপর কোনও বিধি নিষেধ থাকবে না। প্রয়োজন অনুযায়ী যে কোনও রাজ্যে অক্সিজেন সরবরাহ করা হবে। কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে বিপর্যয় মোকাবিলা আইন অনুসারে কেন্দ্রের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দিল্লি সহ বাকি কয়েকটি রাজ্যে অক্সিজেনের অভাব দেখা দিয়েছে। বড় হাসপাতালের পাশাপাশি বাকি সব ছোট বড় হাসপাতালেও দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের আকাল। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। বেশ কয়েকটি হাসপাতাল জানিয়েছে, আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা সরাবরাহ করার মত অক্সিজেন রয়েছে। তারপর কী হবে তা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানে না। চরম উৎকণ্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন আক্রান্তের পরিবার। চোখে জল আর প্রার্থনা করা ছাড়া তাঁদের হাতে আর কিছুই নেই। ইতিমধ্যেই অক্সিজেনের অভাবে উত্তরপ্রদেশে মারা গিয়েছে এক করোনা আক্রান্ত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here