vaccine
বেসরকারি হাসপাতালেও করোনার ভ্যাকসিন

নিজস্ব প্রতিনিধি: সোমবার থেকে করোনার টিকাকরণের নয়া পর্ব শুরু হয়েছে। সরকারি কেন্দ্রগুলোর পাশাপাশি বেসরকারি হাসপাতালেও করোনার ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে। টিকাকরণের গতিকে আর দ্রুত করতে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের স্বাস্থ্য প্রকল্প ও আয়ুষ্মান প্রকল্প মিলিয়ে ১৬ হাজারের বেশি হাসপাতালে টিকাকরণ হবে। তবে বাংলাতে মাত্র ১১টি বেসরকারি হাসপাতালে করোনার টিকা পাওয়া যাবে।

সোমবার থেকে ষাটোর্ধ্ব ও কো-মর্বিটি আক্রান্ত ৪৫ থেকে ৫৯ বছরের মধ্যে থাকা মানুষকে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হচ্ছে। কো-মর্বিটির মধ্যে পড়ছে ২০টি ক্রনিক রোগে আক্রান্ত মানুষ। সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে করোনার টিকা পাওয়া যাবে। তবে বেসরকারি হাসপাতালে করোনার টিকার জন্য সর্বোচ্চ ২৫০ টাকা খরচ হবে বলে জানা গিয়েছে। টিকার মূল্য ১৫০টাকা এবং পরিষেবা খাতে সর্বোচ্চ ১০০ টাকা লাগবে বলে জানা গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে যে ১১টা বেসরকারি হাসপাতালকে করোনার টিকার জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে, তার মধ্যে বেশিরভাগ কলকাতার বেসরকারি হাসপাতাল।

কেন্দ্রীয় সরকারি স্বাস্থ্য প্রকল্পের আওকাভুক্ত হাসপাতাল যেখানে করোনার টিকা দেওয়া হবে সেগুলো হল বিএম বিড়লা হার্ট রিসার্চ সেন্টার (কলকাতা), ডিসান হসপিটাল অ্যান্ড হার্ট ইনস্টিটিউট (কলকাতা), নর্থ সিটি হসপিটাল অ্যান্ড নিউরো ইনস্টিটিউট প্রাইভেট উল্টোডাঙা, বি পি পোদ্দার হসপিটাল অ্যান্ড মেডিক্যাল রিসার্চ লিমিটেড (নিউ আলিপুর), নারায়ানা সুপার স্পেশালিটি হসপিটাল (কলকাতা), নারায়না মাল্টি স্পেশালিটি হাসপাতাল (কলকাতা)।

আয়ুষ্মান প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত যে সব বেসরকারি হাসপাতালে করোনার টিকা দেওয়া হবে সেগুলো হল- রেনুকা আই ইনস্টিটিউট (যশোর রোড, বারাসাত), সঞ্জীবনী হাসপাতাল (উলুবেড়িয়া, হাওড়া), শিলিগুড়ি গ্রেটার লায়েন্স আই হসপিটাল (সেবক রোড, শিলিগুড়ি), পিয়ারলেস হাসপিটাল (পঞ্চসায়ের)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here