ডেস্ক: উপত্যকায় একের পর এক জঙ্গি হামলা। সেনা ও ৩ পুলিশ কর্মীর মৃত্যুর পর ফের গরম হয়ে উঠেছে ভারত-পাক সম্পর্ক। বৈঠক বাতিলের পাশাপাশি চলছে দুই দেশের শীর্ষ নেতৃত্বের মধ্যে উত্তপ্ত বাদানুবাদ। এরই মাঝে ফের হুঁশিয়ারি দিলেন ভারতেত্র সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। তিনি জানান, দরকার আরও এক সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের।

সোমবার এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিপিন রাওয়াত জানান, ‘আমি বিশ্বাস করি উপত্যকায় সহ ভারত পাক সীমান্তবর্তী অঞ্চলগুলিতে যে ধরনের পরিস্থিতি চলছে তাতে খুব শীঘ্রই আরও এক সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রয়োজন। তবে কবে কোথায় কিভাবে এই হামলা হবে তা এখনই প্রকাশ্যে আনব না আমরা।’ বিপিন রাওয়াতের এহেন মন্তব্যের পরই নতুন করে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে আজ থেকে ২ বছর আগে ২৯ সেপ্টেম্বর যেভাবে সীমান্ত পার করে ওপারের জঙ্গি ঘাঁটিগুলিকে গুড়িয়ে দিয়েছিল ভারত, খুব শীঘ্রই কি তবে ফের সেই একই পরিস্থিতি তৈরি হতে চলেছে।

ওই সাক্ষাৎকারে বিপিন রাওয়াত আরও বলেন, পাকিস্তান সংঘর্ষবিরতি কথা বলা সত্ত্বেও অনেকে প্ৰকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে এদেশে ঢুকে পড়ছে। কেউ যাতে কাশ্মীরে শান্তি বিঘ্নিত না করতে পারে, তা দেখতে হবে ভারতকে। তাই আমাদের যা প্রয়োজন আমরা তা করব।’

উল্লেখ্য, ক্ষমতায় আসার পর ভারতেত্র সঙ্গে আলোচনার বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে চিঠি দিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তাতে সাড়াও দিয়েছিল ভারত। কিন্তু উপত্যকায় তিন পুলিশকর্মী হত্যার পর সেই বৈঠক বাতিল করা হয়। স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, সন্ত্রাস ও আলচনা একত্রে চলতে পারে না। তদন্তে জানা যায় ওই ৩ পুলিশকর্মী হত্যার পিছনে হাত রয়েছে পাকিস্তানের আইএসআইয়ের। এরপর কিছুদিন দুপক্ষের উত্তপ্ত বাদানুবাদের পর এবার অন্য কথা শোনা গেল সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াতের মুখে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here