Parul

মহানগর ডেস্ক: নরেন্দ্র মোদির মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণে থাকতে পারেন জন বার্লা।  সন্ধে ছটার সময় ৪৩ জন মন্ত্রী শপথ নেবেন। বাংলার দুই সাংসদ নিশীথ প্রামানিক ও শান্তনু ঠাকুরের মন্ত্রী হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। সূত্রের খবর তাঁরা মন্ত্রী হতে চলেছেন। পাশাপাশি আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বার্লা ও বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকার প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে বৈঠক করেন। তাঁদের মন্ত্রী হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

ads

জানা গিয়েছে, মোদির মন্ত্রিসভায় বড় রদবদল হচ্ছে। ইতিমধ্যে মন্ত্রিসভা থেকে বাদ পড়েছেন শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল নিশাঙ্ক, শ্রমমন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গোয়ার, সঞ্জয় ধোত্রে, রাওসাহেব দানভে পাতিল, রসায়ন ও সার মন্ত্রী সদানন্দ গৌড়া, রতন লাল কাতারিয়া প্রতাপ সরঙ্গি। ইস্তফা দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনও। বাংবার দুই মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও দেবশ্রী চৌধুরীও বাদ পড়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

মোদির মন্ত্রিসভায় সর্বোচ্চ মোট ৮১ জন মন্ত্রী হতে পারেন। অনেকের দায়িত্বে একাধিক মন্ত্রক রয়েছে। তা পৃথক পৃথক করার পরিকল্পনা রয়েছে। সূত্রের খবর মন্ত্রিত্বের দৌড়ে সব থেকে এগিয়ে রয়েছেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। তাঁর কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগাদানের কারণের কংগ্রেসকে সরিয়ে বিজেপি মধ্যপ্রদেশে সরকার গঠন করতে পেরেছে। তার পর বছর দেড় কেটে গেলেো জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া সেভাবে কোনও উল্লেখযোগ্য পদ পাননি।

এছাড়াও এগিয়ে রয়েছেন সর্বানন্দ সোনেয়াল। তিনি অসমের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। অসমের বিধানসভা নির্বাচনে জয় লাভ করলেও তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেননি। তাঁর জায়গায় অসমের মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। আত্মত্যাগের জন্য সোনেয়াল কেন্দ্রীয় মন্ত্রক উপহার পেতে পারেন বলেই অনেকে মনে করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here