kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধিবিজেপি একটা লোডেড ভাইরাস পার্টি। করোনার চেয়েও বড় ভাইরাশ বিজেপিতে রয়েছে। আজ, বুধবার একুশে জুলাইয়ের সভায় একথা বলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপি এজেন্সিদের ঠাকাদার হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ads

এই প্রথম নয়, ঊনিশের লোকসভা নির্বাচনের আগেও একবার তৃতীয় ফ্রন্ট গঠনের উদ্যোগ নিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে সেবার সে প্রচেষ্টা দিনের আলো দেখেনি। কারণ, যে বিজেপি-বিরোধীদের নিয়ে তৃতীয় ফ্রন্ট গঠনের স্বপ্ন দেখেছিলেন মমতা, তাতেই জল ঢেলে দেন অখিলেশ-মায়াবতীর  মতো কয়েকটি আঞ্চলিক দলের প্রধান। যার জেরে মুখ থুবড়ে পড়ে মমতার স্বপ্ন।

সম্প্রতি ফের তৃতীয় ফ্রন্ট গঠনে উদ্যোগী হয়েছেন মমতা। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল জনাদেশ নিয়ে ক্ষমতায় ফেরেন তৃণমূল নেত্রী। তার পরেই পাখির চোখ করেন দিল্লিকে। সেই মতো মমতার হয়ে দৌত্য করতে দিল্লি যান ইলেকশন স্পেশালিস্ট প্রশান্ত কিশোর ওরফে পিকে। সেখানে বিজেপি-বিরোধী বেশ কয়েকটি দলের নেতার সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বৈঠক করেন বর্ষীয়ান এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ারের সঙ্গে। শুধু পাওয়ার নন, পিকে বৈঠক করেন কংগ্রেসের রাহুল গান্ধি, প্রিয়ঙ্কা গান্ধি বঢরা এবং বেণুগোপালের সঙ্গে। সেখানেই শুরু হয়ে যায় বিজেপি হঠানোর ব্লু-প্রিন্ট।

এদিন একুশে জুলাইয়ের সভা থেকে বিজেপিকে দিল্লিছাড়া করার ডাক দেন মমতা। এ প্রসঙ্গেই তৃণমূল নেত্রী বলেন, বিজেপি একটা লোডেড ভাইরাস পার্টি। করোনার চেয়েও বড় ভাইরাস বিজেপিতে রয়েছে। বেকারি বেড়েছে। শুধু গুলি চালাও, সবাইকে মেরে দাও। এই তো রাজনীতি ওদের। তিনি বলেন, বিজেপির মগজে মরুভূমি। মানবাধিকার জানে না। শুধু ফোন ট্যাপ আর স্পাইগিরি করলে সব হয় না। বিজেপি এজেন্সিদের ঠিকাদার হয়েছে, কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রীর।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here