national news

ডেস্ক: রাত পোহালেই সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট। তার আগে প্রচারে কোনও খামতি নেই শাসকদল থেকে বিরোধীদল কারওরই। একে অপরকে তোপ দাগা থেকে শুরু করে ভোট চাওয়া, কিছুই বাকি নেই। এরই মাঝে নতুনভাবে উত্তপ্ত হল গো বলয়ের সবচেয়ে বড় রাজ্য; বিতর্কে জড়ালেন বসপা সুপ্রিমো মায়াবতী এবং মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

রবিবার উত্তরপ্রদেশের সাহারনপুরে মায়াবতী মন্তব্য করেন, বিজেপিকে টক্কর দিতে পারবে না কংগ্রেস। বিজেপির লড়াই হবে সপা-বসপা জোটের সঙ্গেই। এই প্রসঙ্গেই সংখ্যালঘু ভোট না ভাগ করার আর্জি জানান তিনি। মায়াবতী-অখিলেশ জোট হওয়ায় উত্তরপ্রদেশে ভোটচিত্রটা ভীষণই কৌতূহলের হয়ে উঠেছে। এক্ষেত্রে রাজ্যে কংগ্রেস অনেক ভোট কাটতে পারে বলে মনে করছেন বসপা সুপ্রিমো। সেইজন্যই এই আবেদন করেন তিনি। মায়াবতীর এই মন্তব্যের পরই শুরু হয়েছে বিতর্কের। আগুনে ঘি ঢেলে মায়াবতীকে পাল্টা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। বলেছেন,

কংগ্রেস-সপা-বসপা সকলেই একইসূত্রে বাধা। তাদের বিশ্বাস ‘আলি’কে ঘিরে। বিজেপি ‘বজরং বলি’কে ভরসা করে। ওদের যদি মুসলিম ভোট দরকার হয় তাহলে বাকি ভোট বিজেপিকেই দিতে বলে আর্জি জানান যোগী।

এখানেই না থেমে মায়াবতীকে কটাক্ষ করে যোগী আরও বলেন, হিন্দুদের কাছে বিজেপি ছাড়া দেশে কোনও বিকল্প নেই। রাজ্যে দলিত-মুসলিম জোট কোনওভাবেই সম্ভব নয়। এই প্রসঙ্গে মুসলিম লীগকে টেনে আনেন আদিত্যনাথ। মন্তব্য করেন,

কংগ্রেস সহ সপা-বসপাও ‘সবুজ’ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েই সকলে ‘আলি আলি’ বলে লাফাচ্ছে।

এই ভাইরাসকে শেষ করার এইটাই সুবর্ণ সুযোগ বলে দাবি করেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here