Haryana minister
বিতর্কিত মন্তব্যের জের

মহানগর ডেস্ক: কৃষক মৃত্যু নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে বিপাকে হরিয়ানার কৃষি মন্ত্রী জেপি দালাল। আন্দোলনে অংশ নেওয়া কৃষকের মৃত্যুর পর তিনি বলেন, বাড়িতে থাকলেও ওই কৃষকদের মৃত্যু হতো। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্টের পরেই নেটিজেনদের তীব্র নিন্দার মুখে পড়েন তিনি। বিরোধীরা তাঁকে সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণ করেন। চাপে পড়ে একপ্রকার বাধ্য হয়েই নিজের মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী।

আন্দোলনে অংশ নেওয়া ২০০ কৃষকের মৃত্যুর একটি প্রতিবেদন নিয়ে হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী জেপি দালালকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। সেই সময় বেশ হাসি হাসি মুখ নিয়ে তিনি বলেন, ‘তাঁরা বাড়িতে থাকলে কি মারা যেতেন না? তাঁরা বাড়িতে থাকলেও মারা যেতেন। ছয় মাসে এক লক্ষ, দুই লক্ষের মধ্যে ২০০ জন মারা যেতেই পারেন।’ তিনি মন্তব্য করেন, ‘কেউ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। তো কেউ অসুস্থতার জন্য মারা গিয়েছেন। তাঁরা নিজেরা নিজেদের কারণে মারা গিয়েছেন। তাঁদের প্রতি আমার গভীর সহানুভূতি রয়েছে।’

এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজওয়ালা। তিনি বলেন, সহানুভূতি শূন্য মানুষই এই ধরনের মন্তব্য করতে পারেন। অন্নদাতাদের সম্পর্কে এই ধরনের মন্তব্য করার কোনও অধিকার নেই বলেও তিনি জানিয়েছেন। হরিয়ানার কংগ্রেস প্রধান কুমারি সেলজা বলেন, এই ধরনের মন্তব্য করছেন দালাল তাও হাসতে হাসতে। এর থেকেই বোঝা যায় কৃষকদের তাঁরা কীভাবে দেখেন।

গত দুই মাসের বেশি দিল্লির সীমান্তে বিক্ষোভ দেখচ্ছেন কৃষকরা। মূলত, পঞ্জাব, হরিয়ানা, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের কৃষকরা এই বিক্ষোভে অংগ্রহণ করেছেন। সেখানেই অসুস্থতার কারণে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বহু কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। সেই বিষয়েই কথা বলতে গিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন জেপি দালাল। দিল্লির সীমান্তে কৃষকদের এই আন্দোলন দমিয়ে দিতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্র সরকার। জল, বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কৃষকদের জন্য আন্দোলন আরও প্রতিকূল করার চেষ্টা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here