‘ন্যায়বিচার বলে কিছু নেই’, চিন্ময়ানন্দের শাস্তি লঘু করার চেষ্টায় ক্ষোভ উগরালেন নির্যাতিতা

0
210
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ধর্ষণকাণ্ডে শুক্রবারই গ্রেফতার করা হয়েছে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা চিন্ময়ানন্দকে৷ তবুও বিচারব্যবস্থার প্রতি ভরসা রাখতে পারছেন না বলে জানালেন নির্যাতিতা৷ কারণ তাঁর অভিযোগ, ঠিক যে ধারায় মামলা দায়ের করা উচিত ছিল ওই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে তা করা হয়নি৷ এবিষয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগও তুলেছেন ল কলেজের ওই তরুণী৷

তরুণীর অভিযোগ, এই প্রভাবশালী নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে ‘ক্ষমতার অপব্যবহার করে যৌন সঙ্গমের জন্য’ যা ‘ধর্ষণের সমতুল্য অপরাধ নয়’। এই অভিযোগে এই বিজেপি নেতার সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড ও জরিমানা হতে পারে বলে আইনজীবীদের মত। চিন্ময়ানন্দের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ না দেওয়ায় ক্ষোভ উগড়ে দেন ওই ছাত্রী। তিনি বলেন, দেশে বিচারব্যবস্থা বলে কিছু নেই৷ এতদিন এই ভয়ই পাচ্ছিলেন তিনি৷ ওই ছাত্রী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের জন্য আজ চিন্ময়ানন্দ গ্রেফতার হলেন। পুলিশের বিশেষ তদন্তকারী দলকে বারবার বলেছি উনি আমায় ধর্ষণ করেছেন। তা সত্ত্বেও ওঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের ৩৭৪ ধারা দায়ের করা হয়নি।

চিন্ময়ানন্দের সহযোগীদের দেওয়া বয়ানের ভিত্তিতে ওই ছাত্রীর বিরুদ্ধে তোলাবাজির অভিযোগ আনা হয়েছে। ছাত্রী জানিয়েছেন, এ ধরণের কোনও কাজই করেননি তিনি৷ পুলিশ চিন্ময়ানন্দকে বাঁচাতে চাইছে৷ আইন কলেজে ভর্তি হওয়ার পর থেকে এক বছর ধরে তাঁকে যৌন নির্যাতন করেছেন ৭৩ বছরের চিন্ময়ানন্দ। ছাত্রীর একটি স্নানের ভিডিয়ো দেখিয়ে লাগাতার তাঁকে ব্ল্যাকমেল করতেন ওই বিজেপি নেতা। ছাত্রীর দাবি, চশমায় লাগানো গোপন ক্যামেরার মাধ্যমে সে সব রেকর্ড করেন তিনি। সেই ভিডিয়োই পুলিশের হাতে তুলে দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here