tejasi yadav
তেজস্বী যাদব
tejasi yadav
তেজস্বী যাদব

মহানগর ডেস্ক: শিক্ষকরা আন্দোলনে বসতে পারছেন না কারণ প্রসাশন অনুমতি দেয়নি। সেই শিক্ষকদের পাশে এসে দাঁড়ালেন খোদ আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব।  কেন শিক্ষকরা তাঁদের আন্দোলনের অধিকার থেকে বঞ্চিত হবেন, তা জানতে আন্দোলনস্থল থেকেই সটান জেলাশাসককে ফোন করেন তেজস্বী। আর সেই ফোনের কথাই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ফোনে তেজস্বী বলেন, ‘‘শান্তিপূর্ণ অবস্থান করতে চাইছেন শিক্ষকরা, কিন্তু প্রশাসন তাঁদের অনুমতি দিচ্ছে না। কেন? বারবার তাঁদের বিভিন্ন জায়গা থেকে তুলে দেওয়া হচ্ছে। পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে, খাবার ফেলে দিয়েছে। আবার শোনা যাচ্ছে প্রতিদিন আন্দোলনে বসতে দৈনিক অনুমতি নিতে হবে। এমনটা কেন হবে?’’

তখনও জেলাশাসক জানেন না, ফোনের ওপারে কথা বলছেন খোদ তেজস্বী। তিনি উত্তর দেন ‘‘আপনারা আবেদনপত্র পাঠান, আমি দেখব।’’ তেজস্বী পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘‘কতক্ষণের মধ্যে অনুমতি পাবে শিক্ষকরা?’’

তাতে কিছুটা চটে যান জেলাশাসক। তিনি বলে ওঠে্ন, ‘‘এ ভাবে বলা যাবে না।’’ জেলাশাসক পাল্টা কিছুটা কড়া সুরেই বলে বসেন, ‘‘আপনারা এখনও অনুমতির আবেদন করলেন না, তার আগেই জানতে চাইছেন কতক্ষণের মধ্যে অনুমতি দেওয়া হবে?’’

হালকা সুরেই তেজস্বী তখন নিজের পরিচয় দিয়ে বলেন, ‘‘আমি তেজস্বী যাদব বলছি।’’ সঙ্গে সঙ্গে ও পাশ থেকে ‘স্যার’ সম্বোধনে সুর নরম করে কথা বলতে শুরু করেন জেলাশাসক। প্রতিবাদরত শিক্ষকরা এই কাণ্ড দেখে তখন হাততালি দিয়ে উঠেছেন।

এই ঘটনাই পুরোটা ভিডিয়োতে শেযার করেছিলেন কেউ। তারপর থেকেই ভাইরাল হয়েছে ভিডিয়োটি। তেজস্বী যাদবের নেতৃত্বে বিহারের ভোটে সরকার গড়তে না পারলেও ভাল ফল করেছে আরজেডি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here