ছবি: প্রতীকী

ডেস্ক: ভারত-পাকিস্তান ‘সুসম্পর্ক’ যে একটা মিথ সেটাই যেন প্রমান করতে চাইছে পাকিস্তান। কাশ্মীর নিয়ে সীমান্তে জঙ্গি হামলার ঘটনা তো নিত্যদিনের বিষয় হয়েই গেছে। এবার ভারতের আটটি স্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি এল পাকিস্তান থেকে!

জানা যাচ্ছে, হরিয়ানার অম্বালা ক্যান্টনমেন্ট রেল ডিরেক্টরের কাছে একটি চিঠি এসে পৌঁছয়। সেই চিঠিতে আগামী ২০ অক্টোবর দেশের আটটি স্টেশন উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এই আটটি স্টেশনের মধ্যে রয়েছে, জগধারী, সাহারানপুর, জাখাল, হিসার, করনাল, রোহতক এবং পাণিপথ। শুধু স্টেশন নয়, নিদির্ষ্ট কিছু পেট্রোলপাম্প ও মন্দিরেও বিস্ফোরণ ঘটানোর হুমকি রয়েছে চিঠিতে। এই হুমকি চিঠি পাওয়ার পরই নড়েচড়ে বসেছে হরিয়ানা প্রশাসন। উল্লেখিত স্টেশন ও মন্দিরগুলিতে বাড়ানো হয়েছে নজরদারি এবং নিরাপত্তা। বিভিন্ন এলাকায় চালানো হচ্ছে চিরুনী তল্লাশি। এককথায় কড়া নিরাপত্তার চাদরে আবৃত হরিয়ানা। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গিগোষ্টী এই হুমকির দায়ে স্বীকার না করলেও, চিঠিতে পাকিস্তানের করাচির ঠিকানা থাকায় পুলিশের অনুমান এ পিছনে রয়েছে লস্কর-ই-তৈবা।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর পদে আসীন হয়েই ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ককে নয়া মোড় দিতে চেষ্টা করেছেন ইমরান খান। কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে বারংবার দুই দেশের মধ্যে হয়েছে বৈঠক। কিন্তু সীমান্তে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিদের একের পর এক হামলা চালানোর ঘটনার বিরাম হয়নি। সেই ‘ধারা’ অব্যাহত রেখেই কিছুদিন আগেই তিন পুলিশকর্মীকে নৃশংসভাবে হত্যা করে জঙ্গিরা। রোজকারের জঙ্গি হামলার ঘটনাকে সামনে রেখেও পাকিস্তানের সঙ্গে বৈঠকে রাজি হয়েছিল ভারত। কিন্তু তিন পুলিশকর্মীর মৃত্যুর ঘটনার পরেই সেই বৈঠক বাতিল করা হয়। এক চিলতে সুতোর ওপরই দাঁড়িয়ে থাকা ভারত-পাক সম্পর্ক নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছিলেন সুসম্পর্ক স্থাপনের ব্যাপারে ভারত এক ধাপ এগোলে তারা দুই ধাপ এগোবেন। রূপোলি পর্দার ডায়লগের মতো তাঁর এই বার্তা আদতে যেন সাজানো গল্পেরই অংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here