kolkata news
Highlights

  • তৃণমূলের প্রাক্তন পুরপিতা-সহ তৃণমূল এবং সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রায় ৩০০জন
  • বিরোধী শিবির থেকে এদিন এতজন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের
  •  নদিয়ার তাহেরপুরের বিজেপি শহর মণ্ডলের ডাকে একটি কর্মিসভায় এদিন দলত্যাগের ঘটনা ঘটে


নিজস্ব প্রতিনিধি, নদিয়া:
তৃণমূলের প্রাক্তন পুরপিতা-সহ তৃণমূল এবং সিপিএম ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রায় ৩০০জন। বিরোধী শিবির থেকে এদিন এতজন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন বলে দাবি গেরুয়া শিবিরের। নদিয়ার তাহেরপুরের বিজেপি শহর মণ্ডলের ডাকে একটি কর্মিসভায় এদিন দলত্যাগের ঘটনা ঘটে। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতা জয় ব্যানার্জি এবং নদিয়া দক্ষিণের জেলা সভাপতি অশোক চক্রবর্তী-সহ অন্যান্য নেতৃত্ব।

এদিন তৃণমূল এবং সিপিএম ছেড়ে আশা কর্মীদের হাতে বিজেপি’র পতাকা তুলে দেন জয় ব্যানার্জি। এরপর জয় ব্যানার্জি বলেন, আসন্ন পুরভোটে তাহেরপুর পুরসভায় যদি সুষ্ঠুভাবে ভোট হয়, তা হলে নিশ্চিত ভাবে প্রতিটি ওয়ার্ডে জয়লাভ করব আমরা। তৃণমূলের ‘বাংলার গর্ব মমতা’ কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, এটি পুরো মিথ্যা কথা।

উল্লেখ্য, বুধবার নদিয়া জেলা বিজেপিতে ভাঙন ধরে। জেলার কল্যাণীতে বিজেপি ছেড়ে প্রায় তিন হাজার কর্মী-সমর্থক যোগ দেন রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলে। এদিন নদিয়ার কল্যাণী ঋত্বিক সদনে নদিয়া জেলা তৃণমূল সভাপতি শঙ্কর সিং-এর হাত থেকে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নেন দলে যোগ দেওয়া ওই কর্মী-সমর্থকরা।

যার নেতৃত্বে এই দলবদল হয় তার নাম বিপ্লব দে। যিনি সমর্থকদের কাছে সজল দে নামে পরিচিত। সজলবাবু বিজেপি’র নদিয়া জেলার কিসান মোর্চার সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। তিন হাজার কর্মী-সমর্থক নিয়ে তিনি ও তার অনুগামীরা এদিন যোগ দেন তৃণমূলে। আসন্ন পুরসভা নির্বাচনের আগে এতবড় বিজেপি শিবির অনেকটাই অস্বস্তিতে। একইদিনে জেলার অন্যপ্রান্তে আবার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ঘটনা ঘটল। তবে এদিন বড় মাপের কোনও নেতা যোগ দেননি গেরুয়া শিবিরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here