মহানগর ডেস্ক: ২০১৯সালে ৩৭০ধারা রদের পর থেকেই জঙ্গি দমন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে ভারত। পাক জঙ্গী বাহিনীর চোখ রাঙানিকে উপেক্ষা করে জঙ্গি দমনে একের পর এক বড়সড় সাফল্যও পেয়েছে ভারতীয় সেনা। বৃহস্পতিবার জম্মু ও কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলার বাগদাদি অঞ্চলের কাছে তিন লস্কর জঙ্গিকে খতম করলো ভারতীয় সেনা। অন্যদিকে, জঙ্গিদের সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন একপুলিশ কর্মী। গুরুতর জখম হয়েছেন অপর এক পুলিশ কর্মী।

বৃহস্পতিবার রাত্রে কাশ্মীর পুলিশ গোপন সূত্র মারফত খবর পায় যে বুধগাম এবং শোপিয়ান জেলার কাছে কিছু জঙ্গি আত্মগোপন করে রয়েছে। জঙ্গিদের লুকিয়ে থাকার খবর পেয়েই তৎক্ষণাৎ পুলিশ ও নিরাপত্তারক্ষীরা যৌথ অভিযান শুরু করেন। পুলিশকে লক্ষ্য করে জঙ্গিরা গুলি চালাতে শুরু করলে পাল্টা জবাব দেন নিরাপত্তারক্ষীরা। আর তাতেই খতম হন তিন লস্কর জঙ্গি। অন্যদিকে জঙ্গিদের এলোপাথাড়ি গুলিতে প্রাণ হারান কাশ্মীর পুলিশের বিশেষ পুলিশ আধিকারিক মহম্মদ আলতাফ। জখম হন মঞ্জুর আহমেদ অন্য আরেকজন পুলিশ অফিসার।

মৃত জঙ্গিদের কাছে থেকে দুটো একে ৪৭ এবং প্রচুর গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত তিন জনই লস্কর-ই-তৈবার সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ। অন্যদিকে এদিন শ্রীনগরের বাঘাত বারজুল্লায় প্রকাশ্য দিবালোকে দুই পুলিশ কর্মীর ওপর হামলা চালায় এক জঙ্গি। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন ওই দুই পুলিশ কর্মী । গুলি করেই তৎক্ষণাৎ চম্পট দেয় ওই জঙ্গি। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

গত বছর শীত শুরুর আগে থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরে জঙ্গি উপদ্রব অনেকটাই বেড়ে গিয়েছিল। পাক নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর মাটির তলায় একাধিক সুড়ঙ্গ তৈরি করে বহুদিন থেকেই জঙ্গি অনুপ্রবেশ করছে ভারতে। কিন্তু কেন্দ্রের সরাসরি হস্তক্ষেপের পর থেকেই জঙ্গি দমনে বড়সড় সাফল্য পায় ভারতীয় সেনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here