kolkata news
Highlights

  • নতুন কুয়ো কাটার সময় মৃত্যু হল তিন জনের
  • ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানার মন্তেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের ধেনুয়া গ্রামে
  • এই ঘটনায় গোটা এলাকায় তীব্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে


নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান:
নতুন কুয়ো কাটার সময় মৃত্যু হল তিন জনের। এর মধ্যে বাড়ির মালিকও রয়েছেন। মৃত বাড়ির মালিকের নাম ফকির সেখ (৪১)। বাকি দু’জন শ্রমিক। তাদের নাম জাকির সেখ (৩৮) ও লিয়াকত সেখ (২৮)। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের মন্তেশ্বর থানার মন্তেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের ধেনুয়া গ্রামে। এই ঘটনায় গোটা এলাকায় তীব্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, ফকির সেখের বাড়ির পুরনো কুয়ো পায়খানার চেম্বার পূর্ণ হয়ে যাওয়ায় তার পরিবর্তে নতুন করে কুয়ো কাটার কাজ চলছিল দু’দিন ধরে। শুক্রবার সকালেও যথারীতি কুয়ো কাটার কাজ চলছিল। প্রায় ২৫ ফুট গভীরতায় নেমে যান একজন শ্রমিক। কিন্তু তিনি উঠে না আসায় দ্বিতীয় শ্রমিক তিনিও নিচে নেমে যান। কিন্তু তিনিও উঠে না আসায় বাড়ির মালিক ফকির সেখ নিজেই কুয়োয় নেমে পড়েন। কিন্তু তিনিও উঠে না আসায় শুরু হয় চিৎকার-চেঁচামেচি। ছুটে আসেন আশপাশের মানুষ। এরপরই খবর দেওয়া হয় মন্তেশ্বর থানায়। দ্রুততার সঙ্গে পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে তিনজনকেই কুয়ো থেকে উদ্ধার করে।

মন্তেশ্বর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ৩ জনকেই মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। তবে কী কারণে এই মর্মান্তিক মৃত্যু, তা নিয়ে এদিন রীতিমতো রহস্য দানা বেঁধেছে। প্রাথমিক ভাবে অনুমান কুয়ো কাটার নিয়ম না মেনে শ্রমিকরা কাজ করতে যাওয়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। অনেক সময়ই মাটির নিচে মিথেন গ্যাসের প্রভাব থাকে। এর সঙ্গে রয়েছে পাশেই পুরনো কুয়ো। ফলে সেখান থেকেও কোনেও বিষাক্ত গ্যাসের প্রভাবেই দমবন্ধ হয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here