Parul

মহানগর ডেস্ক: উচ্ছৃংখলতার চরমতম নিদর্শন রাখলেন ইংল্যান্ডের সমর্থকরা। ডেনমার্কে বিরুদ্ধে ম্যাচে মিলেছিল যার আভাস। গ্যারি সাউথগেট অনুরোধ করেছিলেন যেন সংযত থাকেন তাঁরা। কিন্তু কে শোনে কার কথা! লন্ডনের রাস্তায় চলার তাণ্ডব চালালেন ইংরেজরা।

ads

সেমিফাইনালে ডেনমার্কের বিরুদ্ধ অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটিয়ে ছিলেন ইংরেজ সমর্থকরা। ব্যঙ্গ করা হয়েছিল প্রতিপক্ষ দলের জাতীয় সংগীতকে। ড্যানিশ গোলকিপার ক্যাসপার স্কিমিচেলের মুখে লেজার বিম ফেলে মনোসংযোগে বিঘ্ন ঘটাতে চেষ্টা করা হয়েছিল। ঘটনাগুলি একেবারেই মেনে নিতে পারেননি সভ্য ফুটবল সমর্থকরা। ইংল্যান্ড দলও বিস্মিত হয়েছিল এই ঘটনায়। উয়েফার জরিমানার মুখে পড়তে হয় ইংল্যান্ডকে। এরপরেও প্রিয় দলের মুখের দিকে চেয়ে শোধরালেন না তাঁরা। বরং আরও লাগামছাড়া ফাইনালের দিনে।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, টিকিট না থাকলে প্রবেশ করা যাবেনা ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে। বারণ সত্তেও কিছু সমর্থকদের জোরপূর্বক ঢোকার চেষ্টা করেন স্টেডিয়ামের ভিতর। এখান থেকেই শুরু হয় সমস্যার সূত্রপাত। বাধা পেয়ে ক্ষিপ্র হয়ে ওঠেন তাঁরা। উড়ে আসতে থাকে একের পর এক বিয়ারের বোতল। রাস্তা দিয়ে যাওয়া বাসের উপরে উঠেও তাণ্ডব চালান কেউ কেউ। লন্ডনের ঝাঁ-চকচকে রাস্তার নিমিষে ভরে ওঠে জঞ্জালে। আসরে নামতে হয় মেট্রোপলিটন পুলিশকে। অভিযোগ, উগ্র ইংরেজ সমর্থকদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন ইতালির সমর্থকরা। উঠেছে বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ। কটাক্ষ করা হয়েছে ইতালির জাতীয় সংগীতকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here