kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: স্বাস্থ্যসাথী কার্ড নিতে গিয়ে তৃণমূল নেতার কাছে মার খেতে হল এক যুবককে। উত্তর দমদম পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের দুর্গানগর নেপালচন্দ্র স্কুল সংলগ্ন ওয়ার্ড অফিসে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নিতে গিয়ে ওই যুবক তৃণমূল নেতার কাছে মার খান বলে অভিযোগ। আক্রান্ত যুবকের নাম অমিত রায়। তৃণমূল নেতাদের এই পেটানোর ঘটনার ভিডিয়ো ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভাইরাল হওয়া ভিডিয়ো ফুটেজে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে স্ত্রী, সন্তান ও মায়ের সামনে রাস্তায় ফেলে পেটানো হয় অমিতকে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন দুপুরে স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড নিতে গেলে তাকে বেধড়ক মারধর করে স্থানীয় তৃণমূল নেতা কিশোর ঘোষ ও তার অনুগামীরা। রাস্তায় ফেলে লাথি ও ঘুষি মারধর করা হয়। তার মা ও স্ত্রী তাকে বাঁচাতে এলে তাদেরকেও মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে, এদিন অসিত রায় তার পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড আনতে গেলে তাকে কটূক্তি করে তৃণমূল কর্মীরা। প্রতিবাদ করতে গেলে ২১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট তথা মিতালি গোষ্ঠীর ক্লাবের সম্পাদক কিশোর ঘোষ অসিতকে মারধর করে বলে অভিযোগ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অমিত তৃণমূল বিরোধী বলে এলাকায় পরিচিত। বছর দু’য়েক আগেও তাকে কিশোর তার দলবল মারধর করছিল। পরে কিশোরের বাহিনী অমিতের বাড়ি ভেঙে দেয়। অমিতের দাবি, তার পরিবারের সদস্যরা স্বাস্থ্য সাথী কার্ড-এর জন্য আবেদন করে। পরিবারের সঙ্গে সে এদিন ওয়ার্ড অফিসে এসেছিল। তবে কোনঅ প্ররোচনা ছাড়াই তার ওপর এদিন হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ তাঁর।  যদিও তৃণমূলের দাবি, প্রথমে অশান্তি শুরু করেছিল অমিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here