ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অনুষ্ঠান, আর সেই অনুষ্ঠানকে ঘিরেই তৃণমূল বিজেপির বচসা রণক্ষেত্রের আকার নিল কলকাতার ভবানীপুরে। চলল পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিও। এই ঘটনায় অভিযোগের আঙুল লুঠেছে বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায়ের দিকে।

জানা গিয়েছে, এদিন মহিলা সেলফ হেলপ গ্রুপের একটি অনুষ্ঠান ছিল ভবানীপুরে। অনলাইন এই অনুষ্ঠানে এই গ্রুপের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। তার জন্য এলাকায় প্যান্ডেল বেঁধে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বিজেপি নেতৃত্ব। এরপরই শুরু হয় সমস্যা, অভিযোগ ওঠে কোনও অনুমতি ছাড়াই এই সভার আয়োজন করেছে বিজেপি নেতারা। যার বাড়ির সামনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় বাধা দেন তিনিও। এরপরই ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন তৃণমূলের একাধিক কর্মী। শুরু হয় বচসা। এরই মাঝে ঘটনাস্থলে আসেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। ওইখানেই অনুষ্ঠান হবে বলে জানান তিনি। এরপরই বচসা প্রবল আকার ধারন করে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে শুরু হয় ধস্তাধস্তি। এই ঝঞ্ঝাটের মাঝে শেষ পর্যন্ত ওই এলাকায় অনুষ্ঠান সম্পন্ন করতে পারেনি বিজেপি কর্মীরা। পরে তা করা হয় পদ্ম পুকুর সংলগ্ন পার্কে।

এই ঘটনার জেরে যারপরনাই বিব্রত লকেট চট্টপাধ্যায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘পুলিশ প্রথমে এই অনুষ্ঠানের অনুমতি দিয়েছিল, কিন্তু পরে তা অস্বীকার করছে পুলিশ। দেশের প্রধানমন্ত্রীর একটি অনুষ্ঠান করতে বাধা দিচ্ছে এরা। প্রধানমন্ত্রীকি বিজেপির প্রধানমন্ত্রী? এটা সকলের অনুষ্ঠান, প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান। সব জায়গায় দলবাজি করে সমস্যা তৈরি করতে চাইছে তৃণমূল।

ছবি প্রতীকী…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here