kolkata bengali

নিজস্ব প্রতিবেদক, কোচবিহার: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল কোচবিহার। তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীকে বাঁশ দিয়ে মাথা ফাটানোর অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহার ১ নম্বর ব্লকের হাওড়ারহাট বাজার এলাকায়। আহত তৃণমূল কর্মীকে চিকিৎসার জন্য কোচবিহার সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আহত ব্যক্তির নাম সুকুমার দাস। তাঁর বাড়ি হাওড়ারহাট এলাকায়।

পরিবারের অভিযোগ, এদিন সুকুমার বাজারে গেলে সেখানেই একদল দুষ্কৃতী সুকুমারের ওপর চড়াও হয়। শুধু তাই নয় লাঠি এবং বাঁশ দিয়ে সুকুমারকে ব্যাপক মারধর করা হয় বলেও অভিযোগ। গুরুতর আহত অবস্থায় সুকুমার দাসকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এবিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের নাটাবাড়ি বিধানসভার কনভেনর আশরাফুল আলি বলেন, বিজেপি আশ্রিত সমাজ বিরোধীরা কোচবিহার জেলা জুড়ে বিভিন্ন এলাকায় সন্ত্রাস সৃষ্টি করে চলেছে। প্রতিদিন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকদের মারধর করা হচ্ছে। আরও অভিযোগ, রবিবার রাতে হাওড়ারহাট ও জিরানপুর এলাকায় বিজেপি আশ্রিত দুস্কৃতিরা এলাকায় বোমাবাজি করে। তারপর সোমবার সন্ধ্যায় সুকুমার বাজারে গেলে তাঁকে ঘেরাও করে মারধর করা হয়। ও তাঁর মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়, পুলিশে অভিযোগ করা হয়েছে। অবিলম্বে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে হবে। তা না হলে তৃণমূল কংগ্রেস বৃহত্তর আন্দলনে নামবে।

এবিষয়ে কোচবিহার জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, রবিবার থেকে আশরাফুল আলির নেতৃত্বে হাওড়ারহাট সহ বিভিন্ন এলাকায় বোমাবাজি করছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এলাকার লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে তাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে। সোমবার হাওয়ারহাট এলাকায় সবুজ শিবিরের দুষ্কৃতীরা তাণ্ডব চালাতে গেলে তাদেরকে তাড়া করে স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনার সঙ্গে বিজেপির কোনও যোগ নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here