Home Latest News তৃণমূলের ব্লক সভাপতির ভাইকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

তৃণমূলের ব্লক সভাপতির ভাইকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে

0
তৃণমূলের ব্লক সভাপতির ভাইকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর, অভিযোগের তীর বিজেপির দিকে
Parul

নিজস্ব প্রতিবেদক, কল্যাণী: তৃণমূলের ব্লক সভাপতির ভাইকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে নদীয়ার কল্যাণী থানার দক্ষিণ চাদামারি এলাকায়। পুলিশ জানায়, কল্যাণী ব্লক সভাপতি তপন মণ্ডলের ভাই রতন মণ্ডলকে বাড়ির সামনে থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে কয়েকজন দুষ্কৃতী। পরে রতন মণ্ডলকে উদ্ধার করা গেলেও ওই দুষ্কৃতীদের হদিশ মেলেনি। এই ঘটনায় বিজেপির দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে তৃণমূল। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কল্যাণী থানার পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, তৃণমূলের কল্যাণী ব্লক সভাপতি তপন মণ্ডলের ভাই রতন মণ্ডলের বাড়ির অদূরে নিজস্ব দোকান রয়েছে। শুক্রবার রাতে ওই দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার সময়ই তাঁকে অপহরণ করা হয়। পুলিশের কাছে রতনবাবু জানিয়েছেন, হঠাৎ করে জনা কুড়ি-পঁচিশ জন দুষ্কৃতী বাইকে করে এসে তাঁকে ঘিরে ধরে। তারপর তারা তাঁকে বেধড়ক মারধর করে তুলে নিয়ে যায়। ঘটনাটি কয়েকজন এলাকাবাসী দেখে ফেলেছিলেন। তাঁরাই রতনবাবুর বাড়িতে খবর দেন। তারপর রতনবাবুর পরিবার গোটা বিষয়টি জানিয়ে কল্যাণী থানায় অভিযোগ দায়ের করে। এরপর পুলিশ প্রায় এক ঘন্টা ধরে কল্যাণীর বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালানোর পর রতনবাবুর হদিস পায় এবং তাঁকে উদ্ধার করে। কিন্তু দুষ্কৃতীরা কেউ ধরা পড়েনি। তবে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই রতনবাবুকে অপহরণ করেছিল এবং এটা কল্যাণী কলেজের টিএমসিপি-এবিভিপি সংঘর্ষের জের বলে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের অভিযোগ।

তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছে, রতন মণ্ডলের ছেলে কল্যাণী কলেজের টিএমসিপি সদস্য। শুক্রবার কল্যাণী কলেজে টিএমসিপি ও এবিভিপি-র মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে এবং ওই সংঘর্ষের ঘটনায় রতন মণ্ডলের ছেলেও ছিল। সেই ঘটনার জেরেই বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা ব্লক সভাপতির ভাইপোকে না পেয়ে ভাইয়ের উপর হামলা চালিয়েছে বলে তৃণমূলের অভিযোগ। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি নেতৃত্ব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here