kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, আসানসোল ও বহরমপুর: পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোল মহকুমার বারাবনীতে তৃণমূলের উপপ্রধানকে মারধর করার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। বারাবনীর মাজিয়াড়াতে বাবুল সুপ্রিয়ের র‍্যালি চলাকালীন ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন বারাবনীর উপপ্রধান জিতেন্দ্র কুমার। তাকে হাতের সামনে পেয়ে তারই গাড়িতে লাগানো দলীয় পতাকার পাইপ খুলে তাকে বেধড়ক মারধর করে মিছিলে থাকা বিজেপি কর্মীরা। মারের চোটে মাথায় গভীর আঘাত লাগে জিতেন্দ্র কুমারের। তাকে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে। ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছান মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি, জেলা সভাপতি ভি শিবদাশন দাশু, কর্নেল দীপ্তাংশু চৌধুরিরা। মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, ‘বাবুল সুপ্রিয় কাপুরুষ। তাই এতজন মিলে একজনকে মারধর করেছে। উনি সাংসদ নন, আসানসোলের ১ নম্বর কয়লা মাফিয়া।’

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজের প্রচার সেরে ফিরছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। সেই সময় বারাবনি থানার মাজিয়াড়া গ্রামে নিজের বাড়ি ফিরছিলেন তৃণমূল নেতা তথা বারাবনি পঞ্চায়েতের উপ প্রধান জিতেন্দ্র পাশোয়ান। জিতেন্দ্রর গাড়িতে তৃণমূলের পতাকা লাগানো ছিল। অভিযোগ, সেই সময় আসানসোলের বিজেপি প্রার্থী তথা কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র উপস্থিতিতেই বিজেপি কর্মী সমর্থকরা হামলা চালায় জিতেন্দ্রর ওপর। জিতেন্দ্রর গাড়িতে লাগানো দলীয় পতাকার পাইপ খুলে তাকে বেধড়ক মারধর করা হয়।

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে বাবুল সুপ্রিয় জানান, একটি জীপ গাড়িতে মদ্যপ অবস্থায় যাচ্ছিলেন জিতেন্দ্র। তিনি চেষ্টা করেছিলেন বাবুলের দিকেই গাড়ি নিয়ে আসতে। কর্মীরা বুঝতে পেরেই তাকে আটকাতে গিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘটনার পর তৃণমূলের তরফে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হলে এক বিজেপি নেতা সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে বারাবনি থানার পুলিশ।

অন্যদিকে, মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুর সদর মহকুমার ইসলাপুর থানা এলাকায় এক বিজেপি কর্মীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে শাসকদলের বিরুদ্ধে। শুক্রবার রাতের এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় ইসলামপুর বাজার সংলগ্ন এলাকায়। প্রহৃত যুবকের নাম আহমেদ ইমতিয়াজ বিপ্লব। তিনি বিজেপির সক্রিয় কর্মী। আহত অবস্থায় তিনি বর্তমানে মুর্শিদাবাদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রহৃত বিজেপি কর্মী জানান, শনিবার রানীনগর ২ ব্লকে বিজেপি প্রার্থী হুমায়ুন কবিরের সমর্থনে জনসভা রয়েছে। তাই শুক্রবার রাতে ইসলামপুর বাজার সংলগ্ন এলাকায় বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা পতাকা বাধার কাজ করছিলেন। তখন তৃণমূল কংগ্রেস ব্লক সভাপতি আমিনুল হাসানের ভাই মাহমাদুল হাসান সহ শাসকদলের কর্মীরা তাদের উপর চড়াও হন।

ঘটনার জেরে ইসলামপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে অভিযুক্তরা অধরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here