kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিউড়ি: চাহিদা মতো উন্নয়ন হয়নি, এমনই অভিযোগ তুলে জেলা পরিষদের সভাধিপতি ও স্থানীয় বিধায়ককে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থকরা। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সদর মহকুমার সিউড়ি-১ ব্লকের তিলপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের হুসেনাবাদ এলাকায়। বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী শতাব্দী রায়ের সমর্থনে এদিন তারা ওই এলাকায় প্রচারে গিয়েছিলেন।

জানা গিয়েছে, সিউড়ি শহর লাগোয়া হুসনাবাদ এলাকায় বৃহস্পতিবার বিকালে বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তথা বাংলা চলচ্চিত্রের নায়িকা শতাব্দী রায়ের সমর্থনে প্রচারে গিয়েছিলেন বীরভূম জেলা পরিষদের সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরী এবং সিউড়ির বিধায়ক অশোক চট্টোপাধ্যায়। সেখানেই তারা স্থানীয় তৃণমূল সমর্থক তথা এলাকাবাসীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন। বিক্ষোভকারীদের দাবি, তিলপাড়া অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি বনজ সাহা বিগত প্রায় তিন বছর ধরে এলাকার মানুষের সঙ্গে কোন ভাবেই যোগাযোগ রাখেননি। না দলীয় কর্মসূচিতে না এলাকার কোন উন্নয়নমূলক কাজে তার খোঁজ পাওয়া গিয়েছে। পাশাপাশি তিলপাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সন্ধ্যা দাইয়ের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করেন বিক্ষোভকারীরা। সন্ধ্যা প্রধান হওয়ার পর থেকে নাকি এলাকার কোন কাজই করেননি। এদিন বিকেলে বিধায়ক এবং সভাধিপতি এলাকায় যেতেই তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় সমর্থক এবং এলাকাবাসীরা তাদের ক্ষোভ উগরে দেন। এরপর সভাধিপতি বিক্ষোভকারীদের প্রতিশ্রুতি দেন তাদের দাবি মত সমস্ত কাজ করা হবে।

 

স্থানীয় বাসিন্দা সানি খান, শেখ জসিমরা জানান, ‘এলাকায় পানীয় জলের সমস্যা আছে, রাস্তায় কোন আলো নেই, বহু মানুষের ঘর নেই, এলাকার দুস্থ মানুষরা কোন অসুবিধায় পড়লে কারও কাছ থেকে কোন ভাবে সাহায্য পাওয়া যায় না। বিগত কয়েক বছর ধরে আমরা অঞ্চল সভাপতির মুখ পর্যন্ত দেখতে পাইনি। প্রধান সেইভাবে এলাকার কোন কাজে নজর দেয়নি। এদিন আমরা সেই সমস্যার কথা বিধায়ক ও সভাধিপতিকে জানিয়েছি। তারা বিষয়গুলি সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে আমাদেরকে।’ সভাধিপতি বিকাশ রায় চৌধুরী বলেন, ‘আমাদেরই কিছু কর্মী সমর্থকদের মান অভিমান ক্ষোভ বিক্ষোভ ছিল। তারা জানিয়েছে আমাদেরকে। তাদের সঙ্গে বসে বিষয়টি সমাধানের আশ্বাস দিয়েছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here