kolkata news
Parul

মহানগর ডেস্ক: গুজরাটের আহমেদাবাদে তৃণমূলের ভার্চুয়াল শহীদ দিবস পালনে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠলো বিজেপি কর্মীদের বিরুদ্ধে। এমনকি শহীদ দিবসের উদ্দেশ্যে লাগানো গুজরাটি ভাষায় লেখা ব্যানারও সরিয়ে দেওয়া হলো। ঘটনায় বিজেপির দিকেই অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছে স্থানীয় তৃণমুল নেতৃত্ব।

ads

এদিন বাংলার পাশাপাশি দেশের আরো ছয়টি রাজ্যে মমতার ভাষণ শোনানোর ব্যবস্থা করে তৃণমূল। গুজরাটের আহমেদাবাদেও ভাষণ শোনানোর ব্যবস্থা করা হয়। অভিযোগ ভাষণ শুরু হওয়ার আগেই ভার্চুয়াল সভাস্থলে গুজরাটি ভাষায় লেখা ব্যানার সরিয়ে দেয় কেউ। ব্যানারটি সরিয়ে দিয়ে সেখানে কালো কাপড়ও ঢেকে দেওয়া হয়। ব্যানারটিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবির পাশাপাশি গুজরাটি ভাষায় শহীদ দিবস সম্পর্কে লেখা ছিল। নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহ’র রাজ্যে এখনো তৃণমূলের সেরকম কোনো উপস্থিতি নেই বললেই চলে। কিন্তু তাতেও ‘বিজেপি সমর্থকদের’ রোষানল কেন এই সমাবেশের ওপর এসে পড়লো তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

উল্লেখ্য গুজরাটের পাশাপাশি দিল্লী, উত্তরপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক ও ত্রিপুরাতেও মমতার একুশে জুলাই এর সভার সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। এদিন সকালে ত্রিপুরাতেও বিজেপি কর্মীদের দ্বারা এই ভার্চুয়াল সভা দেখতে বাধা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। ইতিমধ্যেই তৃণমূল কর্মীদের ওপর বিজেপির চড়াও হওয়ার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে গণমাধ্যমে। তবে আগামীদিনেও মমতা ও তাঁর দল যত ভারত জুড়ে নিজেদের সংগঠন তৈরি করার চেষ্টা করবে এই ধরনের চাপানোতর বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here