aitc mamata banerjee news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা আতঙ্কের প্রভাব এবার পড়তে চলছে রাজ্যের আসন্ন পুরভোটের ওপর। এই রাজ্যে করোনা থাবা না বসলেও সতর্কতামূলক একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে রাজ্য সরকার। সংক্রমণ রুখতে প্রস্তুতি রয়েছে তুঙ্গে। কিন্তু এত কিছুর মধ্যেই সোমবার আবার পুরভোটের দিন ঠিক করতে সর্বদল বৈঠক ডেকেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। সেই ভোটের বেশ কয়েক ঘণ্টা বাকি থাকতেই অবশ্য শাসকদলের তরফে কমিশনের কাছে ভোট পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি করা হয়েছে।

রবিবার রাতেই তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে এই সম্পর্কিত। সেখানে লেখা হয়, কোভিড ১৯-র পরিস্থিতি নিয়ে আমরা সকলেই ওয়াকিবহাল। হু একে ইতিমধ্যেই অতিমারী হিসেবে ঘোষণা করেছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকারও নিজেদের নাগরিকদের সুরক্ষার্থে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে। এই ধরনের পরিস্থিতি উদ্ভূত হওয়ায় আমরা রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন জানাচ্ছি, পুরভোট যেন পিছিয়ে দেওয়া হয়। এই মহামারী রুখতে রাজনৈতিক দলগুলিকে মানুষের স্বার্থে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়তে হবে।

সেখানে আরও লেখা হয়েছে, ভোট আসবে-যাবে। কিন্তু সমাজ যখন এরকম বিপদেই সম্মুখীন তখন রাজনীতির উচিত পিছনের সারিতে থাকা। রাজনৈতিক দলগুলির মানুষের স্বার্থে হাত মিলিয়ে কাজ করা উচিত।

তবে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, পুরভোট পিছিয়ে গেলে আদতে কিছুটা ফ্রন্টফুটে থাকবে রাজ্য সরকারই। এই মুহূর্তে সমস্ত পুরসভায় পুরভোট পিছিয়ে দেওয়া হলে প্রশাসক বসানো হবে সেখানে। তাতে পরবর্তী সময়ে লাভবান হওয়ার সম্ভবনা বেশি শাসকদলের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here