নিজস্ব প্রতিবেদক, পুরুলিয়া: মঙ্গলবার কালীপুজোর রাতে গুলি চলল পুরুলিয়ার পুঞ্চায়। ঘটনায় গুলিবিদ্ধ তৃণমূল কর্মী পিন্টু সিং। আহত ওই ব্যক্তিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন। এদিএনের ঘটনায় কে বা কারা গুলি চালালো, তা নিয়ে ধন্দে পরিবারের লোকেরা। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পারুই গ্রামে।

পুরুলিয়ার পুঞ্চার পারুইগ্রামের বাসিন্দা পিন্টু সিং। এলাকায় অত্যান্ত ভদ্র এবং ভালো ছেলে হিসাবেই পরিচিত তিনি। তার সঙ্গে কারোর কোনও শক্রতা নেই। সেই রকমই দাবী করেছেন গ্রামের বাসিন্দারা। ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, কালীপুজোর রাতে নিজের বাড়িতে বসে মাংস কাটছিলেন পিন্টু। হঠাৎ বাড়িতে ঢুকে পরে বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী। এরপরই পিন্টুকে লক্ষ্য করে গুলি করে পালিয়ে যায় তারা। ঘটনায় ওই তৃণমূল কর্মীর কোমরে গুলি লাগে। সেই সময় বন্দুকবাজ দুষ্কৃতীদের ধাওয়া করে তাদের ধরতে ব্যর্থ হয় পিন্টুর পরিবারের সদস্যরা। শেষে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে নিয়ে যাওয়া হয় পুরুলিয়া দেবেন মাহাতো হাসপাতালে। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে স্থানান্তরিত করা হয় কলকাতায়। বর্তমানে এসএসকেএম হাসপাতালেই রয়েছেন তৃণমূল কর্মী পিন্টু।

মঙ্গলবারের ঘটনায় পিন্টুকে লক্ষ্য করে গুলি চালালো কে? তা নিয়ে ধন্দে রয়েছেন স্থানীয়রা। স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য থেকে জানা গিয়েছে, পিন্টুর কোনও শক্র নেই। এছাড়া এলাকায় সেরকম কোনও রাজনৈতিক অশান্তি হয়নি। তাহলে কারা ঘটালো এই ঘটনা, তা বুঝে উঠতে পাড়ছেন না কেউই। তবে তৃণমূল কর্মী পিন্টুর গুলি বিদ্ধ হওয়ার ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে পাড়ুই গ্রামে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here