kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধিঅনীত থাপাকে শিক্ষা দিতেই কি পাহাড়ের ব্যাটন বিমল গুরুংয়ের হাতে তুলে দিলেন বিনয় তামাং?  আপাতত এই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে পাহাড়ের রাজনীতির আকাশে। যে বিমলকে ঠেকাতে এক সময় তৃণমূল নেত্রীর সঙ্গে দরবার করেছিলেন বিনয়, সেই বিনয়ই মোর্চার পতাকা উজিয়ে গিয়ে দিয়ে এলেন বিমলের হাতে। দৃশ্যতই আপ্লুত বিমল। প্রতিশ্রুতি দিলেন বিনয়কে নিয়ে কাজ করার।

ads

উত্তাল পাহাড়ের অশান্তির দায় গিয়ে পড়ে মোর্চা নেতা বিমল গুরুং-রোশন গিরির ঘাড়ে। তার পরেই গা ঢাকা দেন মোর্চার এই দুই নেতা। বেশ কিছুদিন অন্তরীণ থাকার পরে দিল্লিতে হঠাৎই উদয় হন বিমল- রোশন। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। পরে আচমকাই কলকাতায় চলে আসেন বিমল। বিজেপি-সঙ্গ ছেড়ে তিনি সংস্পর্শে আসেন তৃণমূলের। তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে দেখা করে বেশ কয়েক বছর পরে পাহাড়ে পা রাখেন বিমল-রোশন। ততক্ষণে মোর্চার রাশ চলে গিয়েছে বিনয় তামাং ও অনীত থাপাদের হাতে। বিমল পাহাড়ে যেন পা না রাখেন, সেজন্য মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দরবার করেছিলেন বিনয়। তার পরেও অবশ্য দিব্যি পাহাড়ে যান বিমল। একুশের ভোটেও নামেন কোমর কষে। এরপর দিন কয়েক আগে আচমকাই মোর্চার সমস্ত পদ থেকে পদত্যাগ করেন বিনয়। ছেড়ে দেন প্রাথমিক সদস্যপদও। বিমলের বাড়ি উজিয়ে গিয়ে দিয়ে আসেন দলীয় পতাকা। বলেন, আমরা আমাদের নেতা খুঁজে পেয়েছি।

পর্যবেক্ষকদের মতে, অনীতের সঙ্গে নানা বিষয়ে ইদানিং দূরত্ব তৈরি হয়েছিল বিনয়ের। সেই কারণেই বিমলের কাছে কার্যত আত্ম-সমর্পণ করলেন বিনয়। অনীতকে শিক্ষা দিতেই কী? প্রশ্নটা কিন্তু রয়েই গেল।   

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here