ডেস্ক: ভারতীয় সময় ঠিক সাড়ে আটটা রাশিয়া ও সৌদি আরব দুই দেশের লড়াইয়ের মধ্য দিয়েই শুরু হবে বিশ্বযুদ্ধের শুভসূচনা। তবে তার আগে বিশ্বকাপের বর্ণ্যাঢ্য অনুষ্ঠান আয়োজিত হবে রাশিয়ার লুঝনিকি স্টেডিয়ামে। টানা চার বছর অপেক্ষার পর ক্লাবের বাইরে দেশের হয়ে প্রতিধিত্ব করবেন মেসি, রোনালদো ও নেইমারের মতো তারকারা। ১৪ জুন থেকে শুরু হওয়া এই ফুটবল বিশ্বকাপ চলবে ১৫ জুলাই পর্যন্ত।

এবারের বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ রাশিয়া ছাড়া অংশ নিচ্ছে বিশ্বের ৩২ টি দেশ। এই ৩২টি দেশকে ৮ টি আলাদা আলাদা গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। যেখানে মোট ম্যাচের সংখ্যা ৬৪ টি। বিশ্বের তাবড় ফুটবলারদের এই ম্যাচগুলি অনুষ্ঠিত হবে রাশিয়ার ১১ টি শহরের ১২ টি স্টেডিয়ামে। যে তালিকায় লুঝনিকি স্টেডিয়াম ছাড়াও রয়েছে সেন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়াম, সোচির ফিশ্ট স্টেডিয়াম, একাটেরিনবার্গ স্টেডিয়াম,কাজান এরিনা, নিঝি নোভগোরোড স্টেডিয়াম, রোস্তোভ এরিনা, সামারা এরিনা, মরডোভিয়া এরিনা,ভল্গোগ্রাড স্টেডিয়াম, স্পার্টক স্টেডিয়াম ও কিলিনগ্রাড স্টেডিয়াম।

এদিকে আজকের আয়োজক দেশের সঙ্গে সৌদি আরবের ম্যাচ নিয়েও উত্তেজনা কম নেই। বিশ্বকাপের ইতিহাস বলছে, এখনও পর্যন্ত উদ্বোধনী ম্যাচে কখনও হারেনি আয়োজক দেশ। তবে রাশিয়ার ফুটবল দলের বিগত ম্যাচগুলির ফল মোটেও আশানুরূপ নয়। অন্যদিকে, এশিয়া মহাদেশ থেকে একমাত্র সৌদি আরবই যোগ দিতে পেরেছে এই মহাযজ্ঞে। ফলে তাঁদের কাছেও এই লড়াইটা কম গুরুত্বপূর্ণ নয়। যুদ্ধের প্রথম লগ্নে রাশিয়ার থেকে কিছুটা হলেও এগিয়ে রাখা যেতে পারে সৌদি আরবকে। ফিফার তালিকা অনুযায়ী রাশিয়ার স্থান যেখানে ৭০, যেখানে সৌদি আরবের জায়গা ৬৭। ফলে লেলিনভূমে লড়াইটা মোটেও সাদামাটা হবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here