kolkata news
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি আজ, সোমবার রথযাত্রা। পুজোর বাকি আর ৮৭ দিন। এদিনই বহু বনেদি বাড়িতে কাঠি পড়ে পুজোর ঢাকে। প্রতিমায় লেপন হয় প্রথম মৃত্তিকা। বহু পুজো প্যান্ডেলে এদিন হয় খুঁটিপুজো।

ads

রথযাত্রার দিনেই টান পড়ে রথের রশিতে। এদিনই রথে চড়ে মাসির বাড়িতে যান জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রা। বিশ্ববাসী কেমন রয়েছেন, তা দেখতেই পথে বের হন জগতের নাথ। রথের রশিতে টান দিতে হাজির হন পুণ্যলোভাতুরারা। এদিনই শুরু হয়ে যায় দুর্গাপুজোরও। এমন একটি শুভ দিনে প্রতিমায় মাটি দেওয়া হয়। তার আগে হয় কাঠামো পুজো। পুজো শেষে কুমোর মাটি দেন প্রতিমায়। এদিন থেকেই শুরু হয়ে যায় পুজোর কাউন্টডাউন। কেনাকাটার বাজারও জমতে থাকে ধীরে ধীরে। বাজারে অবশ্য জোয়ার আসে জন্মাষ্টমীর পরে পরে।

এক সময় রথযাত্রা উৎসবের দিনেই বুকিং হত যাত্রাপালার। এখন আর যাত্রা দেখতে তেমন ভিড় হয় না। করোনা অতিমারীর কারণে বছর দুয়েক আগেই দফারফা হয়ে গিয়েছে যাত্রার। কারণ গ্রামাঞ্চলে বন্ধ হয়ে গিয়েছে যাত্রা প্রদর্শন। স্বাভাবিকভাবেই বন্ধ হয়ে গিয়েছে যাত্রাপালার বুকিংও।

যাত্রাপালা বুকিংয়ের সঙ্গে সঙ্গে বন্ধ হয়ে গিয়েছে অনেক কিছুই। বন্ধ হয়নি কেবল বনেদিয়ানা। তাই এদিন কাঠামোয় মাটি পড়েছে বহু বনেদি বাড়িতে। প্রথা মেনে হয়েছে কাঠামো পুজোও। জগতের নাথ যেদিন পথে বের হন জগৎবাসীকে দেখতে, সেদিনই আগমণ বার্তা ঘোষিত হয় জগন্মাতার। পূব আকাশের রং বদলাতে শুরু করে ধীরে ধীরে। মাঠে মাঠে শুরু হয় কাশফুল ফোটার প্রস্তুতি। মা আসছেন যে…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here