মহানগর ওয়েবডেস্ক: আর এক বছরও বাকি নেই, অলিম্পিকের আসর বসতে চলেছে জাপানের টোকিয়োতে। কিন্তু তার আগে প্রবল গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা টোকিয়ো সহ জাপানের বিস্তীর্ণ অংশের। এখনও পর্যন্ত গরমের কারণে ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে সেদেশে। আর এই অত্যধিক গরম যদি আগামী বছরেও থাকে সেক্ষেত্রে ব্যাপক সমস্যায় পড়বেন অ্যাথলিটরা। আর এই কারণেই বেশ বিপাকে আয়োজকরা।

আগামী বছরের ২৪ জুলাই থেকে শুরু হবে অলিম্পিক। কিন্তু এবছর ওই একই দিন থেকে টোকিয়ো ও তার আশেপাশের অঞ্চলের তাপমাত্রা ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি ঘুরছে। জুলাইয়ের ২৯ থেকে ৪ আগস্টের মধ্যে ৫৭ জন মানুষের এই গরমের কারণেই মৃত্যু হয়েছে। প্রায় ১৮০০ লোক একই কারণে হাসপাতালে ভর্তি।

জাপানের আবহাওয়া দফতর দ্বারা প্রকাশিত এক রিপোর্টে দেখা গেছে শেষ দশ বছরের মধ্যে আটবার এই সময়ে টোকিয়োর তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়েছে। গত বছর টোকিয়োর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪১ ডিগ্রি ছাড়িয়েছিল। এছাড়া আপেক্ষিক আর্দ্রতাও প্রায় ৮০ শতাংশের আশেপাশেই থেকেছে। এই বছর এখনও পর্যন্ত টোকিয়োর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯.৫ ডিগ্রি সেলসিয়ার ছুঁয়েছে। আমাদের দেশের মানুষদের কাছে এই গরমটা খুব একটা বেশি নাও মনে হতে পারে। কারণ আমাদের দেশে গরম কালে এটাই গড় তাপমাত্রা থাকে। কিন্তু জাপান শীতপ্রধান দেশ। সেখানে তাপমাত্রা এতটা ওঠাটা খুবই অস্বাভাবিক।

অতিরিক্তভাবে এই তাপমাত্রা বাড়ায় চিন্তায় আয়োজকরা। আগে থেকে সাবধান অলিম্পিকের আয়োজকরা। পুরুষ ও মহিলা ম্যারাথনের সময় সকাল ৬টায় করা হয়েছে। এছাড়া আউটডোর ইভেন্টের সময়ও পরিবর্তন করা হবে। দর্শকদের স্বাচ্ছন্দ্যের কথা ভেবে গ্যালারিতেও বিশেষ ছাউনির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here