শুভায়ণ রায়, কলকাতা: ২০১৮তে টলিপাড়ায় এন্ট্রি নিয়েছেন একাধিক নবাগতা৷ তাঁদের মধ্যে কেউ হয়তো একটি ছবিতেই ছোট্ট রোলে অভিনয় করে দর্শকদের সুজনরে এসেছেন, অন্যদিকে কেউ কেউ বিগবাজেটের ছবিতে মুখ্যচরিত্রে অভিনয় করেও বিশেষ নজরে আসতে পারেননি সিনেপ্রেমীদের৷ মহানগর ২৪x৭ ফিরে দেখল টলিপাড়ায় সেরা পাঁচে কোন কোন নবাগতা অভিনেত্রী মন জয় করল দর্শকদের৷

রাজনন্দিনী পাল: কাঁধের ওপর ছিল স্টারকিডের ব্যাগেজ, কারণ তাঁর মা অভিনেত্রী ইন্দ্রানী দত্ত৷ তবে চলতি বছরে মাত্র দুটো সিনেমা করেই কিন্তু সেই ব্যাগেজ সরিয়ে দিয়েছেন নিজের কাঁধ থেকে৷ ‘উড়নচন্ডী’ সিনেমার মাধ্যমে ডেবিউ করেছিলেন টলিদুনিয়ায়৷ মুখ্যভূমিকায় অভিনয় করে বেশ নজরে এসেছিলেন দর্শকদের৷ এরপর পুজোয় মুক্তি পায় ‘এক যে ছিল রাজা’৷ যেখানে তাঁর স্ক্রিন প্রেজেন্ট ছোট থাকলেও রোলটি ছিল বেশ গুরুত্বপূর্ণ৷ দুটি সিনেমাই বক্সঅফিস হিট৷ ছবি বাছাইও করেছেন বেশ ভেবেচিন্তে৷ স্বাভাবিকভাবে এই তালিকায় শীর্ষস্থানে উঠে এসেছেন অভিনেত্রী রাজনন্দিনী পাল৷

দর্শনা বনিক: ডেবিউ করেছিলেন অরিন্দম শীল পরিচালিত ‘আসছে আবার শবর’ দিয়ে৷ ছোট্ট রোলে অভিনয় করলেও সুনজরে পড়ে যান দর্শকদের৷ স্টারকিড না হওয়ার জেরে টলিপাড়ায় নিজের জমি শক্ত করটা তাঁর কাছে বেশ চ্যালেঞ্জের ছিল৷ কিন্তু একের পর এক ছবি, ওয়েব সিরিজে অভিনয় করে তিনি মুখ বন্ধ করে দেন সমালোচকদের৷ বলতে গেলে ২০১৮ সালটা শুরু হয় এই নবাগতা অভিনেত্রীর হাত ধরে৷ বছরের প্রথমে ‘আসছে আবার শবর’ দিয়ে যেমন বড়পর্দায় ডেবিউ, তেমনি ‘সিক্স’ দিয়ে ওয়েব দুনিয়ায় ডেবিউ৷ পাশাপাশি স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি ‘ব্লু হোয়েল’ কান চলচ্চিত্র উৎসবে স্পেশ্যাল স্ক্রিনিং হয়৷ হাতে রয়েছে একাধিক কাজ যা মুক্তি পাবে আগামী বছর৷ তাছাড়াও চলতি বছরে তাঁর আরও একটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। অঞ্জন দত্তের পরিচালনায় ‘আমি আসব ফিরে’ মুক্তি পেয়েছে এই বছরেই। সেই সিনেমাতেই গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করে সকলের নজর কেড়েছেন দর্শনা।

বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়: পুজোতে মুক্তি পেয়েছে ‘ব্যোমকেশ গোত্র’৷ সেখানেই বিবৃতির সাবলীল অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছেন দর্শকদের৷ পাশাপাশি ওয়েবদুনিয়ায় ডেবিউ করেন আড্ডাটাইমসের সদ্যমুক্তিপ্রাপ্ত সিরিজ ‘ওহ! মাদার’-এর মাধ্যমে৷ সিরিজটি নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকলেও অভিনেত্রীর সাহসী অভিনয় সিরিজটির ইউএসপি হিসাবে গন্য হয়৷ সবমিলিয়ে চলতি বছরে বিবৃতি দর্শকদের মন কেড়েছে তা নিঃসন্দেহে বলাই যায়৷

সঞ্জনা বন্দোপাধ্যায়: ‘ফিদা’ ছবি দিয়ে এই বছরে টলিপাড়ায় পা রাখেন সঞ্জনা বন্দোপাধ্যায়৷ যশের বিপরীতে তাঁর অভিনয় তেমনভাবে সাড়া ফেলতে না পারলেও, তাঁর মধ্যে যে সম্ভাবনা রয়েছে তা বেশ বুঝিয়েছেন এই অভিনেত্রী৷ হাতে রয়েছে একাধিক প্রজেক্ট৷

দ্বিতি সাহা: ডেবিউ করেছেন ‘আসছে আবার শবর’ দিয়ে৷ তাও আবার মুখ্যভূমিকায়৷ আশা করা যায় আগামী বছর আরও ভালো ভালো কাজ করে নিজের অভিনয়দক্ষতার মাধ্যমে আলোকিত হবেন এই নবাগতা অভিনেত্রী৷

চলতি বছরের নবাগতাদের তালিকা এখানেই কিন্তু থেমে নেই৷ ক্লাসরুম-এর মাধ্যমে ডেবিউ করেছেন অভিনেত্রী কুয়াশা, অন্যদিকে বাবলি এবং অস্কার ছবির মাধ্যমে ডেবিউ করেন মিনাশ্রী আয়োশী তালুকদার৷ আশা করা যায় নতুন বছরে এই সুন্দরীরা ধামাকাদার পারফর্মেন্সের মাধ্যমে দর্শকদের নজরে আসবেন৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here