kolkata news

Highlights

  • একটি হাতিকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে উত্তেজিত করল গ্রামবাসী
  • তার লেজ ধরে টানল গ্রামবাসী
  • ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই ব্যবস্থা নেওয়ার পথে বনদফতর

নিজস্ব প্রতিনিধি, ঝাড়গ্রাম: গত কয়েকদিন ধরে ঝাড়গ্রাম জেলার জামবনি এলাকায় স্থানীয় একটি দাঁতালের তাণ্ডবে আতঙ্কিত গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসীদের তাড়া খেয়ে উত্তেজিত হাতিটি স্থানীয় এক বাসিন্দাকে পিষে মেরেছে। সেই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার আগে আরও একটি পাশের রাজ্যের হাতি প্রবেশ করেছিল জামবনি এলাকাতে। নিরীহ হাতিটি গ্রামবাসীদের কোনও ক্ষয়ক্ষতি না করেই এলাকা পার হচ্ছিল দেখে তাকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে উত্তেজিত করল গ্রামবাসীরাই। লেজ টেনে উত্ত্যক্ত করা হল। সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হতে অভিযুক্তর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পথে ঝাড়গ্রাম বনদফতর।

ঘটনাটি ঘটেছে ঝাড়গ্রাম জেলার টুলিবর গ্রামে। জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে জামবনি থানার অন্তর্গত টুলিবর গ্রামে একটি হাতি ঢুকে পড়ে। গ্রামের বাসিন্দাদের কোনও ক্ষয়ক্ষতি না করে ধীরে ধীরে গ্রামের পাশে রাস্তা ধরে জঙ্গলের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করছিল হাতিটি। প্রথমে গ্রামবাসীরা দেখে খানিকটা ভয় পেয়ে গেল পরে বুঝতে পেরেছিল, দাঁতালটি আগের দিনের খুনি হাতি নয়।

হাতিটি কারও ক্ষয়ক্ষতি করছে না জানতে পেরেই স্থানীয় গ্রামবাসীরা তার পিছু ধাওয়া করে মজা করার জন্য। বিভিন্ন ভাবে উত্তেজিত করার চেষ্টা হয় তাকে। কেউ কেউ সেলফি তোলা, কেউ ঢিল, পাথর ছোড়া, কেউ আবার লেজ ধরে জোরে টান দেয়। এসব চলেছে এক ঘণ্টার বেশি সময় ধরে। তারপরেও হাতিটি উত্তেজিত না হয়ে সমস্ত অত্যাচার সহ্য করে জঙ্গলের দিকে ঢুকে গিয়েছে।

হাতিকে উত্তেজিত করার এই ছবিগুলি মোবাইলে তুলে অনেকেই সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল করেছে। মজা করার উদ্দেশ্যে এই ছবিগুলি ভাইরাল করা হলেও বনদফতরের নজরে আসতেই নড়ে বসেছে আধিকারিকরা। খোঁজ নেওয়া শুরু হয়েছে ওই গ্রামবাসীদের। বনদফতর বারবার সাবধান করা সত্ত্বেও এই ঘটনা নিজেদেরই ক্ষতির চেষ্টা বলেই বনকর্তারা মনে করছেন।
ঝাড়গ্রাম জেলার ঝাড়গ্রাম ডিভিশনের ডিএফও বাসবরাজ হেলেইচ্চি বলেন, গ্রামবাসীর দ্বারা উত্তেজিত হওয়া হাতিরাই মানুষ খুন করতে বাধ্য হয়। হাতিকে এইভাবে উত্তেজিত না করলে বিপদ এড়ানো যায়। তাই বারণ করা সত্ত্বেও এই কাজ যে বা যারা করেছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাদের খোঁজ চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here