Parul

মহানগর ডেস্ক: কেরলে জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। কেরলে নতুন করে তিন জন জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ২২ মাসের এক শিশু রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। যার ফলে কেরলে মোট জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৮।

ads

গত সপ্তাহ থেকেই কেরলে জিকা ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। প্রথমে ২২ বছরের এক অন্তঃসত্ত্বা মহিলার শরীরে জিকা ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। এরপরে রাজ্যে জিকা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে যায়। এই প্রসঙ্গে কেরলের স্বাস্থ্য দফতর থেকে জানানো হয়েছে, রাজ্যে ২২ মাসের এক শিশু জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। পাশাপাশি একজন স্বাস্থ্যকর্মী ও ৪৬ বছরের এক ব্যক্তি জিকা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

কেরলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীণা জর্জ বলেন, তিরুবনন্তপুরমে জিকা ভাইরাসের একটি পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করা হয়েছে। ত্রিশূর, কোঝিকোড় মেডিক্যাল কলেজ এবং আলাপুজ্জায় ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজিতে জিকা ভাইরাসের পরীক্ষা করা হচ্ছে। তিনি জানিয়েছেন, রবিবার মোট তিনটে ব্যাচে জিকা ভাইরাসের পরীক্ষা করা কর। দুটি ব্যাচে ২৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হলেও ২৬টি নেগেটিভ আসে। অন্যদিকে, তৃতীয় ব্যাচে তিনটি নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

পুণের এনআইভি নির্দেশ দিয়েছেন, যাঁরা জ্বরে ভুগছেন, তাঁদের যেন দ্রুত পরীক্ষা করা প্রয়োজন। হাসপাতালে যাঁরা ভর্তি রয়েছেন, বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলারা, তাঁদের জ্বর আসছে কি না, কিংবা গায়ে ব়্যাশ উঠছে কিনা, সেই বিষয়ে বিশেষ নজর দেওয়া হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে আরও ২৭ টি পরীক্ষাকেন্দ্র তৈরি করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here